বাইশ গজে বিরাট কোহালির দাপট দেখে মুগ্ধ হয়ে যান অনেকেই। এ বার মাঠের বাইরের কোহালিকে দেখে মুগ্ধ ইংল্যান্ডের এক প্রাক্তন ক্রিকেটার। বা বলা ভাল, কোহালির সৌজন্য দেখে। তিনি মাইকেল ভন।

মঙ্গলবারই অ্যাডিলেড থেকে পার্‌থ চলে আসে ভারতীয় ক্রিকেট দল। আসার পথে বিমানে এমন একটা কাজ করেন কোহালি, যা নজরে পড়ে যায় ভনের। বিমানে ঠিক কী ঘটেছিল? ঘরোয়া বিমানে বিজনেস ক্লাসের বেশি সিট না থাকায় ভারতীয় ক্রিকেটারেরা সবাই সেই উচ্চশ্রেণিতে যেতে পারেননি। বিরাট কোহালি এবং অনুষ্কা শর্মার এ দিনই ছিল প্রথম বিবাহবার্ষিকী। স্বাভাবিক ভাবেই তাঁদের টিকিট ছিল বিজনেস ক্লাসে। কিন্তু কোহালি যখন দেখেন, দলের কয়েক জন পেসারের জায়গা হয়নি সেখানে, তিনি এবং তাঁর স্ত্রী নিজেদের আসন ছেড়ে দেন ভারতীয় বোলারদের জন্য। কারণ একটাই। বিজনেস ক্লাসে অনেক আরামে যেতে পারবেন পেসাররা। বিশ্রামও পাবেন ঠিকমতো। শুক্রবার পার্‌থ টেস্ট শুরুর আগে যে বিশ্রাম খুবই প্রয়োজন ইশান্ত শর্মা, যশপ্রীত বুমরা, মহম্মদ শামির। 

এই ঘটনা চোখে পড়ে যায় ভনের। ইংল্যান্ডের প্রাক্তন ক্রিকেটার তার পরে টুইট করেন, ‘‘দেখতে পেলাম বিরাট কোহালি এবং অনুষ্কা শর্মা নিজেদের বিজনেস ক্লাসের আসন ছেড়ে দিল ভারতীয় দলের পেসারদের জন্য। যাতে অ্যাডিলেড থেকে পার্‌থ— এই যাত্রাপথে পেসাররা বসার একটু ভাল জায়গা আর আরাম পায়।’’ এর পরে ভন আরও লেখেন, ‘‘বিপদ, অস্ট্রেলিয়া। ভারতীয় দলের পেসাররা এখন যথেষ্ট ফুরফুরে। পাশাপাশি ওদের অধিনায়ক কিন্তু খুব মানবিকতার সঙ্গে দলকে চালাচ্ছে।’’

ভনের টুইটেই সামনে আসে ‘বিরুষ্কা’র এই সৌজন্য। যার পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রশংসা শুরু হয়ে যায় এই তারকা জুটির। চিত্রতারকা রাহুল বসু টুইট করেন, ‘‘দারুণ কাজ, অনুষ্কা, বিরাট। কিন্তু এই ঘটনায় আমি একটুও অবাক হইনি।’’