পি ভি সিন্ধু এবং সাইনা নেহওয়াল। জিতলেন দু’জনই। কিন্তু দু’জন দু’রকম ভাবে। চিনের উহানে এশীয় ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম রাউন্ডে জাপানের তাকাহাসি সায়াকার বিরুদ্ধে সিন্ধু জিতলেন অনায়াসে। ২১-১৪, ২১-৭ ফলে জিততে তাঁর লাগল মাত্র ২৮ মিনিট। প্রতিযোগিতায় চতুর্থ বাছাই সিন্ধু দ্বিতীয় রাউন্ডে খেলবেন ইন্দোনেশিয়ার চোইরুন্নিসার বিরুদ্ধে।

বিশ্বের ন’নম্বর এবং এই প্রতিযোগিতার সপ্তম বাছাই  সাইনাকে প্রথম রাউন্ডের বাধা পেরোতে প্রচুর কাঠখড় পোড়াতে হল। তাঁর খেলা ছিল চিনের হ্যান ইউ-র সঙ্গে। প্রথম গেম তিনি বিশ্রী ভাবে ১২-২১ হেরে যান। অবশ্য পরের দু’টি গেমে দারুণ ভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে জেতেন ২১-১১, ২১-১৭ ফলে। লন্ডন অলিম্পিক্সের ব্রোঞ্জ পদকজয়ী সাইনাকে এ বার দ্বিতীয় রাউন্ডে লড়তে হবে দক্ষিণ কোরিয়ার কিম গা ইউনের সঙ্গে।

ভারতের জন্য খারাপ খবরও আছে। এ দিন প্রথম রাউন্ডেই হেরে বিদায় নিলেন পুরুষ বিভাগে ভারতের প্রধান ভরসা কিদম্বি শ্রীকান্ত। ভারতীয় তারকার হারটা প্রতিযোগিতার একটা বড় অঘটন। কারণ তাঁকে হারিয়েছেন বিশ্বের ৫১ নম্বর খেলোয়াড় ইন্দোনেশিয়ার শেসার হিরেন রুস্তাভিতো। তাও মাত্র ৪৪ মিনিটে। শ্রীকান্ত হারেন ১৪-২১, ২০-২২। মজা হচ্ছে, বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে এতটা পিছিয়ে থাকা রুস্তাভিতোর কাছে শ্রীকান্ত কিন্তু দু’বার খেলে দু’বারই হারলেন। তবে প্রথম বার দু’জনে মুখোমুখি হয়েছিলেন সেই ২০১১ সালে জুনিয়র বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে। সে বার শ্রীকান্ত হেরে যান তিন গেমে খেলে। এমনিতে এই মরসুমে বেশ ভাল খেলছিলেন শ্রীকান্ত। ইন্ডিয়া ওপেনে তিনি ফাইনালিস্ট। মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুর ওপেনে কোয়ার্টার ফাইনালে খেলেছিলেন। তাই এশীয় আসরে তাঁর কাছে প্রচুর প্রত্যাশা ছিল। কিন্তু তিনি শেষ পর্যন্ত হতাশই করলেন। দ্বিতীয় গেমে তো অনেকটা এগিয়ে থেকেও শেষরক্ষা করতে পারেননি।      

পুরুষ বিভাগে শ্রীকান্ত হেরে গেলেও সমীর বর্মা কিন্তু জিতেছেন। ২১-১৩, ১৭-২১, ২১-১৮ ফলে তিনি হারান জাপানের সাকাই কাজ়ুমাসাকে। প্রথম গেম দাপট নিয়ে জিতলেও জাপানের প্রতিপক্ষ কাজ়ুমাসা দ্বিতীয় গেম জিতে নেওয়ায় নাটকীয় মোড় নেয় এই ম্যাচ। তবে তৃতীয় গেমে প্রাধান্য ছিল সমীরেরই। লড়াই শেষ হয় প্রায় এক ঘণ্টা সাত মিনিটে।

ডাবলসে পুরুষ, মহিলা দু’বিভাগেই হেরেছে ভারত। পুরুষ বিভাগে এম আর অর্জুন-রামচন্দ্রন শোলক জুটি ১৮-২১, ১৫-২১ ফলে হারে চিনের হে জিতিং ও তান কুইয়াংয়ের কাছে। মেয়েদের ডাবলসে ভারতীয় জুটি মেঘনা জাক্কামপুরি ও পূর্বিশা এস রামকে হারায় তাইল্যান্ডের জংকোলফান কিতিথারাকুল-রাউইন্দা প্রাজোঙজাই। ফল ১৩-২১, ১৬-২১।