• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

শেষ টেস্টে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে অ্যাসেজ জয় অস্ট্রেলিয়ার

Ashes
অ্যাসেজ জয়ের পর অস্ট্রেলিয়া অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ। ছবি: এএফপি।

ইংল্যান্ড ৩৪৬ ও ১৮০

অস্ট্রেলিয়া ৬৪৯/৭ (ইনিংস ঘোষণা)

পাঁচ ম্যাচের সিরিজ ৩-০তে এগিয়েই পঞ্চম টেস্ট খেলতে নেমেছিল অস্ট্রেলিয়া। সিরিজ জয়ও হয়ে গিয়েছিল স্মিথ বাহিনীর। লক্ষ্য ছিল সিরিজ ৪-০তে জিতে নেওয়ার। সে লক্ষ্যে সফল অজিরা। উল্টোদিকে, মান বাঁচানোর লড়াইয়ে নেমেছিল ইংল্যান্ড। সেটা হল না। তিন টেস্টে হেরে পঞ্চম টেস্ট জয়ের লক্ষ্যে সফল হল না ব্রিটিশরা। বরং হেরে যেতে হল ইনিংসে। ৪-০তে সিরিজ জিতে নিল অস্ট্রেলিয়া।

টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক জো রুট। কিন্তু শুরুটা একদমই ভাল করতে পারেনি। দুই ওপেনার কুক ও স্টোনম্যান ৩৯ ও ২৪ রান করেই ফিরে যান প্যাভেলিয়নে। তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ভরসা দিতে পারেননি ভিন্স। তাঁর রান ২৫। প্রথম তিন ব্যাটসম্যান দ্রুত ফিরে যাওয়ার পর ইংল্যান্ড ইনিংসের হাল ধরেন স্বয়ং অধিনায়ক জো রুট ও মালান। রুট আউট হন ব্যাক্তিগত ৮৩ রানে। মালানের রান ৬২। সাময়িক বড় রানের আশ্বাস পেলেও এই দু’জন ছাড়া আর কেউই দাঁড়াতে পারেননি। বেয়ারস্টো, মঈন আলি, কুরান, ব্রডরা কেউই হাফ সেঞ্চুরির কাছে পৌঁছতে পারেননি। অস্ট্রেলিয়া বোলারদের দাপটে ৩৪৬ রানেই অল-আউট হয়ে যায় ইংল্যান্ড।

প্যাট কামিন্স নেন ৪টি উইকেট। দুটো করে উইকেট স্টার্ক ও হ্যাজেলউডের। একটি উইকেট নেন লিয়ঁ। জবাবে ব্যাট করতে নেমে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাট থেকে আসে তিনটি সেঞ্চুরি। ওপেনার ব্যানক্রফট কোনও রান না করে ফিরে গেলেও ডেভিড ওয়ার্নারকে সঙ্গে নিয়ে ম্যাচের মোর ঘোরানোর পথে হাঁটতে শুরু করেন উসমান খোয়াজা। ওার্নার আউট হন ৫৬ রানে। খোয়াজা যখন থামেন তখন তাঁর নামের পাশে লেখা হয়ে গিয়েছে ১৭১ রানের বিরাট ইনিংস। অধিনায়ক স্মিথের ব্যাট থেকে আসে ৮৩ রান। এখানেই শেষ নয়, মার্শ ব্রাদার্সের (১৫৬ ও ১০১) জোড়া সেঞ্চুরিতে অস্ট্রেলিয়ার দলগত রান পৌঁছে যায় ৬৪৯এ। এর পরই ইনিংস ঘোষণা করে দেন স্মিথ।

আরও পড়ুন
সেঞ্চুরির পর সেলিব্রেশন করে প্রায় বিপদ ডেকে এনেছিলেন মার্শ ভাইয়েরা, দেখুন ভিডিও

ইংল্যান্ডের হয়ে একটি করে উইকেন নেন অ্যান্ডরসন, ব্রড, কুরান  ক্রেন। জোড়া উইকেট মঈন আলি। রানের পাহাড় মাথায় নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামে ইংল্যান্ড। কিন্তু সেই লক্ষ্যের কাছে পৌঁছতে পারেনি। সেই অধিনায়ক জো রুটের একটা হাফ সেঞ্চুরি ছাড়া আর বলার মতো কিছুই ছিল না। ৫৮ রান রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে প্যাভেলিয়নে ফেরেন তিনি। টেস্টের শেষ দিন ১৮০ রানেই শেষ হয়ে যায় ইংল্যান্ডের ইনিংস। প্রথম ইনিংসে চার উইকেট নেওয়া প্যাট কামিন্স দ্বিতীয় ইনিংসেও চার উইকেট তুলে নেন।তিন উইকেট লিয়ঁর। একটি করে উইকেট নেন স্টার্ক ও হ্যাজেলউড। ইনিংস ও ১২৩ রানের পঞ্চম টেস্ট জিতে নেয় অস্ট্রেলিয়া।

ম্যাচে আট উইকেট নিয়ে সেরা হয়েছেন প্যাট কামিন্স।  টুর্নামেন্টের সেরা স্টিভ স্মিথ। পাঁচ ম্যাচের অ্যাসেজ সিরিজ জিতে বছরটা যে ভাবে শেষ করেছিল অস্ট্রেলিয়া ঠিক সাফল্যের সঙ্গেই শেষ করল।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন