আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রত্যাবর্তন হতে চলেছে স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারের। তাঁদের প্রত্যাবর্তনের মঞ্চ অবশ্যই ২০১৯ বিশ্বকাপ। সোমবারই আসন্ন বিশ্বকাপের দল ঘোষণা করল ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। স্মিথ, ওয়ার্নার থাকলেও ১৫ জনের দলে সুযোগ পেলেন না জশ হেজলউড ও পিটার হ্যান্ডসকম্ব।

বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পাওয়ার সুবাদে আইপিএল শেষ হওয়ার আগেই হয়তো প্রাক-বিশ্বকাপ শিবিরে যোগ দিতে হবে স্মিথ, ওয়ার্নারকে। ২ মে থেকে শুরু হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার প্রাথমিক শিবির। সে ক্ষেত্রে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ও রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্সের বিরুদ্ধে খেলা হবে না সানরাইজার্স ওপেনারের। অন্য দিকে স্মিথ খেলতে পারবেন না দিল্লি ক্যাপিটালসের বিরুদ্ধে। সেই সঙ্গে প্লে-অফে খেলার সুযোগও হয়তো পাবেন না তাঁরা। অস্ট্রেলীয় নির্বাচক ট্রেভর হন্স বলেছেন, ‘‘স্মিথ ও ওয়ার্নার বিশ্বের অন্যতম সেরা। চলতি আইপিএলে ওদের ছন্দে আমি মুগ্ধ।’’

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘‘বিশ্বকাপ দলে যে ১৫ জনের নাম ঘোষণা করা হয়েছে, তাদের শিবির শুরু হবে ২ মে থেকে ব্রিসবেনে। প্রত্যেককে সেই শিবিরে যোগ দিতে হবে।’’

 শিবিরে অনুশীলনের পাশাপাশি তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচেরও আয়োজন করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। নিউজ়িল্যান্ড একাদশের বিরুদ্ধে তিনটি ম্যাচ খেলে ইংল্যান্ড রওনা দেবেন স্মিথ, ওয়ার্নারেরা। 

হেজলউড, হ্যান্ডসকম্বের সঙ্গেই বাদ পড়েছেন অ্যাশটন টার্নার, কেন রিচার্ডসনেরা। মোহালিতে ভারতের বিরুদ্ধে ৪৩ বলে ৮৪ রানের ইনিংস খেলে সিরিজে সমতা ফিরিয়েছিলেন এই অলরাউন্ডার। অথচ তাঁকে ছাড়াই ইংল্যান্ড উড়ে যাবে অ্যারন ফিঞ্চের দল। হন্স বলছিলেন, ‘‘দলগঠন করতে গিয়ে অনেক কঠিন সিদ্ধান্ত আমাদের নিতে হয়েছে। যেমন টার্নার, হ্যান্ডসকম্ব, কেন রিচার্ডসনকে আমরা দলে রাখতে পারিনি। কিন্তু এই তিনজনকেই অস্ট্রেলিয়া ‘এ’ দলে নেওয়া হয়েছে। অ্যাশেজের আগে ইংল্যান্ড সফরে খেলে নিজেদের তৈরি করে নেওয়ার সুযোগ পাবে ওরা।’’

গত বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের প্রথম ম্যাচ ১ জুন আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে। তার আগে ইংল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে দু’টি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবেন স্মিথরা। হন্স বলে গেলেন, ‘‘স্টার্ক ও জাই রিচার্ডসনকে নেওয়ার কারণ, ওদের ফিটনেস। হেজলউড অনেক দিন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বাইরে। ‘এ’ দলের হয়ে খেলে ওর কিছুটা থিতু হওয়া প্রয়োজন।’’

১৫ জনের দল: অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), অ্যালেক্স ক্যারি (উইকেটকিপার), ডেভিড ওয়ার্নার, স্টিভ স্মিথ, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, উসমান খোয়াজা, শন মার্শ, মার্কাস স্টোয়নিস, প্যাট কামিন্স, নেথান কুল্টার-নাইল, নেথান লায়ন, অ্যাডাম জ়াম্পা, মিচেল স্টার্ক, জাই রিচার্ডসন ও জেসন বেহরেনডর্ফ।