• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মেলবোর্ন পার্কে অস্তমিত সূর্য

আক্ষেপের শেষ নেই রজারের

Fedex
ইন্দ্রপতন: মেলবোর্নে হতাশায় ডুবে ফেডেরার।রবিবার।—ছবি এএফপি।

Advertisement

তাঁর চেয়ে ১৭ বছরের ছোট এক খেলোয়াড়ের কাছে হেরে যে এতটা ভেঙে পড়বেন রজার ফেডেরার, তা কেউ ভেবেছিলেন? রবিবার হারের পরে ফেডেরারের কথা শুনে মনে হল, এই ব্যর্থতা একেবারেই অসহ্য লাগছে তাঁর। যখন বললেন, ‘‘খুব আফসোস হচ্ছে আমার।’’ 

মেলবোর্নে এসেছিলেন বছরের প্রথম গ্র্যান্ড স্ল্যামে খেতাব জয়ের হ্যাটট্রিক করার সংকল্প নিয়ে। কিন্তু সেই রাস্তায় যে সবচেয়ে বড় কাঁটা হয়ে উঠবেন কুড়ি বছরের এক গ্রিক তরুণ, তা বোধহয় ভাবতেই পারেননি। গ্র্যান্ড স্ল্যামে এই প্রথম কোনও গ্রিক খেলোয়াড়ের বিরুদ্ধে খেললেন। আর তাতেই হার। আক্ষেপের শেষ নেই সুইস তারকার। মেলবোর্নে ২০১৬-য় নোভাক জোকোভিচের কাছে সেমিফাইনালে হেরেছিলেন তিনি। তার পর থেকে রবিবারের আগে পর্যন্ত টানা সাফল্য পেয়েছেন এখানে। অথচ সেই ফেডেরারই এ দিন এক ডজন ব্রেক পয়েন্ট পেয়েও সবক’টি সুযোগ নষ্ট করেন। কিন্তু কেন এই হার? ফেডেরারে ব্যাখ্যা, ‘‘দ্বিতীয় সেট জিততেই হবে, এটা মাথায় ঢুকে পড়েছিল। কী ভাবে জিতব, সেটা না ভেবে চাপটা নিয়ে নিই। এই জন্যই হেরে গেলাম। এই ধরনের ম্যাচে অনেকগুলো বিষয় একসঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে।’’

যাঁর কাছে এই অঘটনের হার, সেই নতুন তারকা স্তেফানো চিচিপাসকে নিয়ে তাঁর মন্তব্য, ‘‘এমন একজনের কাছে হারলাম, যে আজ আমার চেয়ে ভাল খেলেছে। ও আজ সারাক্ষণ খেলার মধ্যে ছিল। ঠান্ডা মাথায় খেলেছে। কোনও তরুণ খেলোয়াড়ের পক্ষে মাথা এত ঠান্ডা রাখা মোটেই সোজা নয়। এটাই ওর কৃতিত্ব। ছেলেটা মনে হচ্ছে অনেক দূর যাবে।’’ 

পরপর ব্রেক পয়েন্টের সুযোগ নষ্ট নিয়ে ফেডেরার বলেন, ‘‘ওই সময় ভাবনা অনুযায়ী খেলতে পারিনি। হপম্যান কাপে স্তেফানোসের বিরুদ্ধে খেলার সময়ও ওকে ব্রেক করতে পারিনি। ওর বিরুদ্ধে রিটার্ন করার সময় আমার কিছু ভুল হচ্ছে, যেটা আমাকে ঠিক করতে হবে।’’

এই ব্যর্থতার জ্বালা মেটাতে এ বার ফরাসি ওপেনেও খেলতে চান ফেডেরার। গত তিন মরসুমে যেখানে খেলেননি তিনি। বলেন, ‘‘সে রকমই ইচ্ছে আছে। এখন আমি টেনিস থেকে ভরপুর আনন্দ পেতে চাই। এখন আর লম্বা ছুটির দরকার নেই।’’

এই হারের পরে বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে তিন নম্বর থেকে নেমে যাবেন তিনি। অস্ট্রেলীয় ওপেনের ফাইনালের পরে প্রকাশিত বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে যা স্পষ্ট হবে। দু’বছর আগে অস্ট্রেলীয় ওপেনে দুরন্ত প্রত্যাবর্তনের পরে বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে প্রথম দশে ফিরে আসেন ফেডেরার। ২০১৭-র এপ্রিল থেকে পাঁচের নীচে কখনও নামেননি সুইস মহাতারকা। 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন