দেউলিয়া বরিস বেকার। ঋণের ভারে জর্জরিত জার্মানির এই কিংবদন্তি টেনিস তারকা। আংশিক ভাবে সেই বোঝা থেকে নিষ্কৃতি পেতে নিজের বেশ কিছু ট্রফি ও সম্পত্তি নিলামে তুলতে চলেছেন তিনি। ব্রিটিশ নিলাম সংস্থা ‘ওয়েলস হার্ডি’ সোমবার থেকেই অনলাইনে নিলাম শুরু করেছে বেকারের জেতা সেই সমস্ত ট্রফি ও অন্যান্য সম্পত্তির। সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ১১ জুলাই পর্যন্ত চলা এই নিলামে থাকবে কনিষ্ঠতম উইম্বল্ডন বিজয়ী বরিসের পদক, ট্রফি, ঘড়ি ও ছবি।

যে সমস্ত ট্রফি নিলামে উঠছে তাঁর মধ্যে রয়েছে চ্যালেঞ্জ কাপ জয়ের রেপ্লিকা ট্রফি, তিনটি রেনশ কাপের রেপ্লিকা যা তিনি পেয়েছিলেন পুরুষদের মধ্যে কনিষ্ঠতম হিসেবে গ্র্যান্ড স্লাম সিঙ্গলস জেতার পরে। থাকছে ১৯৯০-এর উইম্বলডন রানার্স হওয়ার ট্রফি। সে বারের ফাইনালে এডবার্গের কাছে হেরে গিয়েছিলেন ‘বুম বুম’ বেকার। ইউএস ওপেন ১৯৮৯ সিলভার কাপের রেপ্লিকাও উঠছে নিলামে।

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের ব্যর্থদের একাদশে এক ভারতীয়ও! দেখে নিন গোটা দল

বেকারকে অবশ্য ২০১৭ সালেই দেউলিয়া ঘোষণা করা হয়েছিল। তবে শুধু বেকার নন, অনেক বিখ্যাত কোটিপতি খেলোয়াড়কেই বিভিন্ন সময় দেউলিয়া ঘোষণা করা হয়। পশ্চিম জার্মানির (এখন জার্মানি) ফুটবল তারকা আন্দ্রে ব্রেহেমেকেও দেউলিয়া ঘোষণা করা হয়েছিল। ব্রেহেমের পেনাল্টি থেকে গোলেই ১৯৯০ বিশ্বকাপ ফাইনালে হেরে যায় মারাদোনার আর্জেন্টিনা। নিউজিল্যান্ডের বিখ্যাত ক্রিকেটার ক্রিস কেয়ার্নস, ইংল্যান্ডের গোলকিপার ডেভিড জেমসও হয়ে গিয়েছিলেন দেউলিয়া। ১৯৮৯ সালে বিখ্যাত সুইডিশ টেনিস তারকা বিয়র্ন বর্গ-এর দেউলিয়া হওয়ার ইতিহাস রয়েছে।

নব্বইয়ের দশকের টেনিসে ফিটনেস বিপ্লব এনেছিলেন বেকার। নেটের সামনে শরীর ছুড়ে বিপক্ষের মারা ফোরহ্যান্ড বা ব্যাকহ্যান্ড অবলীলায় ফেরত পাঠাতেন। সেই বেকারের অবলম্বন আজ ক্র্যাচ। অন্যের সাহায্য ছাড়া চলতে পারেন না তিনি। খেলোয়াড় জীবনের গোড়ালির চোট দীর্ঘ দিন ধরে ভোগাচ্ছিল তাঁকে। যা খেলা ছাড়ার পর তা বড় আকার নেয়।

২০১৩ সালে জকোভিচের কোচ হিসেবে কাজ শুরু করেন বেকার। ২০১৬ সালে সেই কাজও ছেড়ে দেন জার্মান টেনিস তারকা।

টেনিস জীবন তাঁকে দিয়েছিল যশ, অর্থ, প্রতিপত্তি কিন্তু আজ তিনি দেউলিয়া।

আরও পড়ুন: বিরল রোগের খরচ মাসে ২৫ হাজার! মেসির চিকিত্সার খরচ চালাতেই রাজি হননি কেউ