• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

লা লিগা

জিতে সতর্ক জ়িদান, জয় বার্সেলোনারও

Karim Benzema
উচ্ছ্বাস: আলাভেসের বিরুদ্ধে গোল করে বেঞ্জেমার লাফ। ছবি: টুইটার

রিয়াল মাদ্রিদ ২  •  আলাভেস ০

ভায়াদলিদ ০  •  বার্সেলোনা ১

শুক্রবার রাতে আলাভেসকে ২-০ হারিয়ে লা লিগা খেতাব প্রায় নিশ্চিত করে ফেলল রিয়াল মাদ্রিদ। তবুও জ়িনেদিন জ়িদান মানছেন না, ট্রফি তাঁদের মুঠোয়। ‘‘শেষ পর্যন্ত কী হবে এখনও আমরা বুঝতে পারছি না। লা লিগা খুবই কঠিন একটা টুর্নামেন্ট। এখনও তিনটি ম্যাচ খেলতে হবে। তিনটিই ফাইনাল আমাদের কাছে,’’ বলছেন রিয়ালের মহাতারকা ম্যানেজার।

অঙ্কটা হচ্ছে, তিনটির মধ্যে দু’টি ম্যাচ জিততে হবে করিম বেঞ্জেমাদের। যদিও টেবলের দ্বিতীয় স্থানে থাকা বার্সেলোনাও শনিবার রাতে ভায়াদলিদকে ১-০ হারিয়ে খেতাবি লড়াইয়ে টিকে থাকল।  ৩৫ ম্যাচে ৮০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষ স্থানে রিয়ালই রয়েছে। এক ম্যাচ বেশি খেলা লুইস সুয়ারেসদের পয়েন্ট এখন ৭৯। অর্থাৎ, ব্যবধান মাত্র এক পয়েন্টের।  শনিবার ভায়াদলিদের বিরুদ্ধে ম্যাচের ১৫ মিনিটে লিয়োনেল মেসির পাস থেকে গোল করে বার্সাকে জেতান আর্তুরো ভিদাল। 

 তবে বার্সার সঙ্গে পয়েন্ট সমান হলে রিয়ালই চ্যাম্পিয়ন হবে। কারণ দু’দলের মুখোমুখি সাক্ষাতে এ বার এগিয়ে রয়েছে রিয়ালই।
শুক্রবার রিয়ালের দুই গোলদাতা করিম বেঞ্জেমা (১১ মিনিটে) এবং মার্কো আসেন্সিয়ো (৫০ মিনিটে)। আগের তিন ম্যাচের মতো এ দিনও সেই পেনাল্টি থেকে গোল হল! যা নিয়ে প্রশ্ন করা হলে জ়িদান কিছুটা বিরক্ত হয়ে বললেন, ‘‘পেনাল্টি হলে তো রেফারি পেনাল্টিই দেবেন! তা ছাড়া, ওই আক্রমণটা থেকে গোলও হতে পারত।  আসল ব্যাপার তো গোল! সেটা পেনাল্টি থেকে হলেই বা অসুবিধে কোথায়?’’ সের্খিয়ো র‌্যামোস নির্বাসনে থাকায় ফরাসি তারকা বেঞ্জেমাই পেনাল্টি শট নেন। আসেন্সিয়োর গোলও তাঁর পাস থেকে।  যদিও পাস দেওয়ার সময় বেঞ্জেমা অফসাইডে ছিলেন, এমন দাবি উঠল। রেফারি অবশ্য ভিডিয়োর সাহায্য নিয়েই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেন। বার্সা-সহ বিভিন্ন মহল থেকে বারবার দাবি করা হচ্ছে, চলতি মরসুমে ‘ভার’ (ভিডিয়ো অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি) প্রয়োগে রিয়াল ‘বিশেষ সুবিধে’ পাচ্ছে! বার্সা ম্যানেজার কিকে সেতিয়েনও সেই অভিযোগ করেছেন। 

জ়িদান যাবতীয় বিতর্কিত প্রসঙ্গ এড়িয়ে বলেছেন, রিয়াল সত্যিই চ্যাম্পিয়ন হলে কৃতিত্ব পাওয়া উচিত থিবো কুর্তুয়ার।  বেলজিয়ামের এই গোলরক্ষক শুক্রবার অন্তত তিনটি অবধারিত গোল বাঁচিয়েছেন। জ়িদান বলছেন, ‘‘আমাদের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সদস্য থিবো। এই মরসুমে প্রচুর গোল বাঁচিয়েছে। আমরা এত ভাল খেলেছি ওর জন্যই।’’ যোগ করেছেন, ‘‘কোনও ম্যাচেই গোল হজম করব না, হয় না! এটাও ঘটনা, খুব বেশি গোল এ বার খাইনি। তার অনেকটাই কৃতিত্ব কিন্তু থিবোর।’’ 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন