তিনি ফিরলেন। স্বস্তি ফিরল শিবিরে।

আজ, মঙ্গলবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অভিযান শুরু করছে বার্সেলোনা। প্রতিপক্ষ বুন্দেশলিগার দুর্ধর্ষ প্রতিপক্ষ বরুসিয়া ডর্টমুন্ড। কিন্তু গত কয়েক দিন ধরে যে প্রশ্নের মুখে বারবার বিচলিত হয়ে পড়ছিলেন ম্যানেজার আর্নেস্তো ভালভার্দে, তার উত্তর মিলল সোমবার। অনুশীলনে নামলেন লিয়োনেল মেসি। ক্লাবের চিকিৎসকরা জানিয়ে দিলেন, তিনি ফিট। এক মুহূর্ত সময় নষ্ট না করে তাঁকে রেখেই তালিকা প্রকাশ করে দিল বার্সা।

কিন্তু মেসি কতটা ফিট? পুরো ম্যাচে খেলার মতো পরিস্থিতি কি তৈরি হয়েছে? ২৫ মে কোপা দেল রে ফাইনালের পর থেকেই মাঠের বাইরে বার্সা মহাতারকা। পায়ের চোটের জন্য অনেকটা সময় থাকতে হয়েছে বাইরে। এমনকী শনিবার লা লিগায় ভ্যালেন্সিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচও তিনি দেখেছেন গ্যালারি থেকে। ক্লাবের ওয়েবসাইটে ম্যানেজার ভালভার্দে বলেছেন, ‘‘অনুশীলনে লিয়ো ছিল স্বাভাবিক। কোনও ধরনের চোট রয়েছে বলে মনে হয়নি। তবে হাতে অনেকটা সময় রয়েছে। মেসি সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নিতে আরও একটু অপেক্ষা করতে চাই।’’

তবে মেসির প্রত্যাবর্তনের সঙ্গে ক্যাম্প ন্যু জনতার মন জিতে নিয়েছে ১৬ বছরের ‘বিস্ময় বালক’ আনসুমানে ফাতি। যার দুর্দান্ত পাসিং এবং পরিণত ফুটবলবোধ অবাক করে দিয়েছে সকলকে। নতুন তারকার খেলায় সন্তুষ্ট হলেও সতর্ক থাকছেন ভালভার্দে। তাঁর মন্তব্য, ‘‘বার্সেলোনার সিনিয়র দলের জার্সি পাওয়া মোটেও সহজ বিষয় নয়। ওর ফুটবলবোধ এবং দৃষ্টি অত্যন্ত স্বচ্ছ। তবে ওকে চাপে ফেলে দেওয়ার ইচ্ছে আমাদের নেই। প্রয়োজন পড়লে ওকে খেলাব।’’

প্রতিপক্ষ বরুসিয়াও এ বার সাড়া জাগিয়ে শুরু করেছে বুন্দেশলিগা। চার ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে তারা রয়েছে দু’নম্বরে। দলের সুইডিশ ম্যানেজার লুসিয়ান ফাব্রে যেমন স্পষ্ট করে দিয়েছেন, প্রতিপক্ষের নাম বার্সেলোনা বলে তাঁদের কোনও উদ্বেগ নেই। সোমবার সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেছেন, ‘‘এ বার ড্র হওয়ার আগেই আমার কেমন যেন মনে হয়েছিল, গ্রুপ লিগে ওদের সঙ্গে দেখা হতে পারে। বলতে পারেন, আমার দল খুশি বার্সার সঙ্গে খেলার সুযোগ পেয়ে।’’ বরুসিয়ার অভিজ্ঞ ফরোয়ার্ড মার্কো রয়েস আবার এক ধাপ এগিয়ে জানিয়েছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে মেসিকে মাঠে দেখলে খুশি হবেন। তাঁর মন্তব্য, ‘‘আমি ব্যক্তিগত ভাবে মেসিকে মাঠে দেখলে আনন্দিত হব। এটা অস্বীকার করার উপায় নেই, ও-ই বিশ্বের সেরা ফুটবলার। মেসি খেলল এবং আমরাও ঘরের মাঠে জিতলাম, তার চেয়ে ভাল ঘটনা আর কী হতে পারে।’’

সতর্ক লিভারপুল: ইপিএলে ছুটছে তাঁর দল। কিন্তু চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রথম ম্যাচ খেলতে নামার আগে সতর্ক য়ুর্গেন ক্লপ। গতবারের চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল দলের ম্যানেজার সমীহ করছেন দিয়েগো মারাদোনার প্রাক্তন ক্লাব নাপোলিকে। যারা চলতি সেরি আ-তে শুরুটা আদৌ ভাল করতে পারেনি। কার্লো আনচেলোত্তির দল ৩ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে পাঁচ নম্বরে। তবুও ক্লপ বলেছেন, ‘‘গতবার কী হয়েছিল, তা এখন আমার কাছে মূল্যহীন। এই মুহূর্তে আমার দলকে আগে নক-আউট পর্বে ওঠা নিশ্চিত করতে হবে। আর সেই পথ মোটেও মসৃণ নয়।’’ বরং তাঁর সংযোজন, ‘‘ঘরের মাঠে নাপোলি ভয়ঙ্কর প্রতিপক্ষ। ফলে আমাদের স্বস্তিতে থাকার উপায় নেই। অঙ্ক কযেই ম্যাচটা খেলতে হবে। কোনও অবস্থাতেই হারা যাবে না।’’

পরীক্ষা ল্যাম্পার্ডের: ইপিএলে শেষ ম্যাচে উলভসের বিরুদ্ধে ৫-২ গোলে জয়। নতুন তারকা  ট্যামি আব্রাহামের হ্যাটট্রিক। তার পরেও স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে ভ্যালেন্সিয়ার বিরুদ্ধে খেলতে নামার আগে সতর্ক ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ড। চেলসি ম্যানেজার বলেছেন, ‘‘দলে তরুণদের ভিড় বেশি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের মতো আসরে আবেগ দিয়ে বেশি দূর যাওয়া যায় না। প্রয়োজন অভিজ্ঞ ফুটবলারের। সেই জায়গায়  সামান্য হলেও সীমাবদ্ধতা রয়েছে। সেটাই আমাকে ভাবাচ্ছে।’’ 

আজ চ্যাম্পিয়ন্স লিগে: ডর্টমুন্ড বনাম বার্সেলোনা (রাত ১২.৩০, সোনি টেন ওয়ান), নাপোলি বনাম লিভারপুল (রাত ১২.৩০, সোনি টেন টু), চেলসি বনাম ভ্যালেন্সিয়া (রাত ১২.৩০, সোনি সিক্স চ্যানেলে)।