জম্মু ও কাশ্মীরের সাম্প্রতিক রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে ক্রিকেটারদের চিন্তার কিছু নেই। সেখানকার ক্রিকেট সংস্থাকে সাহায্যের জন্য তৈরি রয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। সোমবার এ কথা জানিয়ে দিলেন জম্মু ও কাশ্মীরের ক্রিকেট মেন্টর তথা প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার ইরফান পাঠান।

কাশ্মীর উপত্যকার সাম্প্রতিক পরিস্থিতিতে স্থানীয় ক্রিকেটারদের সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি। তাই ভিজ়ি ট্রফিতে খেলতে যাচ্ছে না জম্মু ও কাশ্মীর দল। ইরফান বলেন, ‘‘আশা করছি, বাকি মরসুমে এই সমস্যার কোনও প্রভাব ক্রিকেটে পড়বে না। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে কথা বলেছিলাম। ওরা সব রকমের সাহায্য করতে তৈরি। দিন কয়েক পরে পরিস্থিতি ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হলে অন্য কোথাও যেতে হবে না।’’

ইরফান বলেন, ‘‘১৪ জুন থেকে প্রস্তুতি শিবির শুরু হয়েছিল। ভারতীয় দলের সঙ্গে যুক্ত এক ট্রেনারকে উড়িয়ে এনে এক মাসের প্রস্তুতি হয়েছিল। ক্রিকেটারদের ফিটনেস বেড়েছিল। কিন্তু উপত্যকার পরিবেশ অশান্ত হলে কার্ফু জারি হয়। তখনই ছেলেদের নিরাপত্তার কথা ভেবে তাদের বাড়ি ফিরতে বলা হয়।’’

এ দিকে, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের দৈনন্দিন কাজে স্বার্থ-সংঘাতের নিয়ম কার্যকর করতে গিয়ে বাস্তবিক সমস্যা হচ্ছে সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত প্রশাসকদের কমিটির (সিওএ)। সোমবার প্রশাসকদের কমিটির অন্যতম সদস্য ডায়ানা এডুলজি তা জানান। সকলের অবগতির জন্য শ্বেতপত্র প্রকাশ করা হবে বলে 

জানান তিনি। এ দিন প্রাক্তন ও বর্তমান বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারের সঙ্গে কথা বলেন ডায়ানা ও অবসরপ্রাপ্ত লেফটেন্যান্ট জেনারেল রবি থোড়গে। ছিলেন প্রাক্তন অধিনায়ক দিলীপ বেঙ্গসরকর, সঞ্জয় মঞ্জরেকর, ইরফান পাঠান প্রমুখ। পরে থোড়গে বলেন, ‘‘সৌরভের সঙ্গে কথা হল স্কাইপেতে। ওঁর মত জানলাম। এ বার শ্বেতপত্র প্রকাশ করে অ্যামিকাস কিউরি-র কাছে জমা দেব। তিনি সুপ্রিম কোর্টে তা দাখিল করবেন।’’