মিতালি-ঝুলনের ভারতকে হারিয়ে বাংলাদেশের মহিলাদের এশিয়া কাপ জেতার নেপথ্যে মিতালি-ঝুলনদেরই প্রাক্তন সতীর্থ!

মাত্র তিন সপ্তাহ হল পদ্মাপারের দেশে মহিলা ক্রিকেট দলের কোচের পদে এসেছেন অঞ্জু জৈন। আর দায়িত্ব নিয়েই এশিয়া কাপে চ্যাম্পিয়ন করিয়েছেন বাংলাদেশকে।শুধু রবিবার কুয়ালালামপুরে ফাইনালেই ভারতকে হারিয়ে এশিয়া-সেরা হয়েছে বাংলাদেশ, তা নয়। গ্রুপের ম্যাচেও ভারত ও পাকিস্তানকে হারিয়েছিল তারা।  

আর এখানেই অঞ্জুর কৃতিত্ব।আলাদিনের আশ্চর্য প্রদীপের মতো মুহুর্তের মধ্যে পালটে দিয়েছেন বাংলাদেশ মহিলা দলকে। গত মাসে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে গিয়ে ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি সিরিজে টানা আট ম্যাচে হেরেছিল তারা। মনোবল তলানিতে ঠেকেছিল। সেই দলকে হাতে নিয়েই পাইয়েছেন সাফল্যের স্বাদ। আর সেটাও ছয়বারের চ্যাম্পিয়ন ফেভারিট ভারতের বিরুদ্ধে টানটান উত্তেজনার মুহূর্তে। শেষ বলে দরকার ছিল দুই রান। তার আগের দুই বলে পড়েছিল উইকেট। রীতিমতো রক্তচাপ বাড়ার পরিস্থিতি। শেষ বলে বাংলাদেশের বাজিমাতের নেপথ্যে কোচ অঞ্জুকে কৃতিত্ব তাই দিতেই হবে।

জাতীয় দলের জার্সিতে অঞ্জু। ছবি টুইটারের সৌজন্যে।

এর আগে ২০১২ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও ২০১৩ সালে একদিনের বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের কোচ ছিলেন অঞ্জু। কিন্তু, দেশের বাইরে এটাই তাঁর প্রথম কোচিং। আর দায়িত্ব নিয়ে প্রথম বলেই ছয় মারার মতোই কাণ্ড ঘটিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন
ভারতের থেকে এশিয়া কাপ ছিনিয়ে নিল বাংলাদেশের মেয়েরা

ক্রিকেটার হিসেবেও অঞ্জু ছিলেন বেশ সফল। প্রাক্তন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান খেলেছেন ৮টি টেস্ট ও ৬৫টি ওয়ান-ডে। ১২ বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার পর, ২০০৫ সালে অবসর নেন। টেস্টে মোট রান ৪৪১, গড় ৩৬.৭৫। ক্যাচ ১৫টি, স্টাম্প ৮টি। একদিনের ক্রিকেটে মোট রান ১৭২৯। গড় ২৯.৮১। ক্যাচ ৩০টি, স্টাম্প ৫১টি। ২০০০ সালে বিশ্বকাপে তাঁর নেতৃত্বে সেমিফাইনালেও উঠেছিল ভারত।

খেলা ছাড়ার পর কোচিংয়েই মন দেন অঞ্জু। বড় সাফল্য এই প্রথম। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড এশিয়া কাপ জেতার জন্য পুরস্কারের ঘোষণা করেছে। কোচিং স্টাফরা পাবেন মোট ৭৫ হাজার ডলার। আর প্রত্যেক ক্রিকেটার পাবেন ১৪,৮০০ ডলার করে। বেতন বাড়ানোর প্রতিশ্রুতিও দেওয়া হয়েছে।