• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নজরে পিচ, বাংলার নকশায় তিন স্পিনার

Lal
তিন স্পিনারের ভাবনা অরুণ লালের।—ফাইল চিত্র।

রঞ্জি ট্রফিতে বেশ কঠিন গ্রুপে পড়েছে বাংলা। একের পর এক বড় দলের বিরুদ্ধে পরীক্ষা দিতে হচ্ছে তাদের। তিন ম্যাচ হয়ে গিয়েছে। একটিতেও প্রথম ইনিংসে পিছিয়ে থাকেনি অভিমন্যু ঈশ্বরনের দল।  কেরলকে তাদের ঘরের মাঠে হারিয়েছে। অন্ধ্রপ্রদেশ ও গুজরাতের বিরুদ্ধে ইডেনে তিনটি করে গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট পেয়েছে বাংলা। এ বার ‘মিশন বিদর্ভ’।

শেষ দু’বারের চ্যাম্পিয়নদের বিরুদ্ধে আজ, শনিবার নাগপুরে নামছে বাংলা। অভিমন্যু, অভিষেক রামনদের স্বাগত জানানো হবে শুষ্ক পিচে। প্রতিপক্ষ শিবিরে উমেশ যাদব থাকলেও বিদর্ভের শক্তি তাদের ব্যাটিং ও স্পিন আক্রমণ। বাঁ-হাতি স্পিনার আদিত্য সরওয়াটে, অক্ষয় কর্ণেওয়ারের সঙ্গে অফস্পিনার অক্ষয় ওয়াখড়ে রয়েছেন বিদর্ভ শিবিরে। যদিও তাঁদের ঘূর্ণিকে সহায়তা করতে পিচে কোনও ঘাস নেই। বাংলা দলের কোচ অরুণ লাল তো বলেই দিলেন, ‘‘একেবারে আন্ডারপ্রিপেয়ার্ড উইকেট। বোলারদের স্পাইক পড়লেই মাটি গুঁড়ো হয়ে যাবে। প্রচণ্ড শুষ্ক। ব্যাটসম্যানদের সমস্যা হবে।’’ যোগ করেন, ‘‘উইকেট দ্রুত ভেঙে যাওয়ার সম্ভাবনাও রয়েছে। ফাটল তৈরি হলে দাপট শুরু হবে পেসারদেরও। ফাটলে পড়ে যে কোনও দিকে কাট করতে পারে বল।’’

এখনও পর্যন্ত বাংলা দলকে গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট এনে দিতে বড় ভূমিকা নিয়েছেন পেসাররা। নাগপুরে পা রাখার পরে তাদেরই একন তিন স্পিনারে দল সাজাতে হচ্ছে। শুক্রবার নিউজ়িল্যান্ড উড়ে গিয়েছেন ঈশান পোড়েল। পেস বিভাগ সামলানোর দায়িত্ব সদ্য অভিষেক হওয়া আকাশ দীপ ও মুকেশ কুমারের উপরে। দলে ফেরানো হচ্ছে অফস্পিনার-অলরাউন্ডার অর্ণব নন্দীকে। বাঁ-হাতি স্পিনার শাহবাজ আহমেদ রয়েছেন। অভিষেক হতে পারে তরুণ বাঁ-হাতি স্পিনার শ্রেয়ান চক্রবর্তীর। 

পেসার-অলরাউন্ডার অয়ন ভট্টাচার্যের পরিবর্তে মরসুমে প্রথম রঞ্জি ট্রফির ম্যাচ খেলতে চলেছেন অনুষ্টুপ মজুমদার। তাঁকে দলে ফেরানোর কারণ কী? কোচের ব্যাখ্যা, ‘‘স্পিনারদের খুব ভাল সামলাতে পারে ও। অতিরিক্ত বল ঘুরলে কী করা উচিত, জানে অনুষ্টুপ। সুইপ ও কাট ভাল খেলে। এই শটগুলোই স্পিনারদের বিরুদ্ধে রান বার করার আদর্শ। মনোজকেও বাড়তি দায়িত্ব নিতে হবে। ওরা দু’জনেই স্পিনের বিরুদ্ধে খুব ভাল খেলে।’’ 

ভাল স্পিন খেলেন বিপক্ষের সব চেয়ে অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান ওয়াসিম জাফরও। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটেই ১৯ হাজারের উপরে রান তাঁর। গত বছর ওপেন করছিলেন। এ বছর তিন নম্বরে নামছেন। তাঁর সঙ্গেই বাংলাকে পরীক্ষায় ফেলতে পারেন গণেশ সতীশ, অক্ষয় ওয়াডকরের মতো তারকা ব্যাটসম্যান। আর বোলিং বিভাগ মুখিয়ে থাকবে উমেশের বিধ্ব‌ংসী রূপ দেখার আশায়। অধিনায়ক অভিমন্যু যদিও বলছিলেন, ‘‘ভাল বোলারকে যোগ্য সম্মান দেব। কিন্তু অতিরিক্ত সম্মান নয়। বলের মান অনুযায়ী খেলব।’’ 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন