তিনি যে দেশের সেরা প্লেয়ার এখনও তা নিয়ে কোনও সংশয় নেই। বিশ্বের সেরা অল-রাউন্ডারের জন্য ৫৫ লাখ টাকাটা আর এমন কী? তাঁকে পেতে এভাবেই ঝাঁপিয়েছিল বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের সব দল। সাকিব আল হাসান। বিশ্ব ক্রিকেটে বাংলাদেশের সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ মুখ। সেই সাকিবকে বিপিএল-এ ৫৫ লাখ বাংলাদেশ টাকার বিনিময়ে কিনে নিয়েছে ঢাকা ডায়নামাইটস। আরও ছ’জনের সঙ্গে তিনি রয়েছেন এ-প্লাস ক্যাটাগরিতে।

মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল, মাশরাফি মোর্তাজা ও মাহমুদুদল্লাহ রয়েছেন ঠিক সাকিবের পরেই। তাঁদের প্রাপ্য ৫০ লাখ করে। তৃতীয় স্থানে রয়েছেন সাব্বির রহমান ও সৌম্য সরকার। তাঁদের প্রাপ্য ৪০ লাখ। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের সচিব ইসমাইল হায়দার বলেন, ‘‘বাংলাদেশের সিনিয়ার প্লেয়াররা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কাছে লিখিত আর্জি জানিয়েছিল বিদেশি প্লেয়াররা এই টুর্নামেন্টের জন্য যেমন টাকা পায় তাঁদেরও যেন তাই দেওয়া হয়। অন্যান্য দেশে এমন টুর্নামেন্টে বিদেশি ও স্বদেশি প্লেয়াররা একই রকম টাকা পায়। এ ছাড়া নিজেদের দল নিজেরা বেছে নেওয়ারও আর্জি জানিয়েছিল প্লেয়াররা।’’

তবে সাকিবের পিছনে সব থেকে বেশি টাকা খরচ করার কারণ হিসেবে উঠে আসছে তাঁর বিভিন্ন দেশে এরকম টুর্নামেন্ট খেলার অভিজ্ঞতা। এটা বাংলাদেশে আর কারও নেই। সচিবের মতে, সৌম্য সরকার আর সাকিবের মূল্য কোনও ভাবেই এক হতে পারে না। নির্বাচকরাও সেটা মেনে নিয়েছেন। যে কারণে সাকিব ও কয়েকজন সিনিয়র প্লেয়ার বাকিদের থেকে বেশি টাকা পাচ্ছে। যাঁদের রাখা হয়েছে এ-প্লাস বিভাগে।

আগামী ২২ নভেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ। খেলা হবে মীরপুর ও চট্টগ্রামে।

আরও খবর

জিতলেই সেঞ্চুরি হয়ে যাবে বাংলাদেশের