• সোহম দে
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নারিন ছাড়াও নাইট বোলিং সেরা, মনে হচ্ছে রায়নার

‘যে টিমে হগ আছে, তাদের আর কী চাই’

raina
শহরে স্পনসরের অনুষ্ঠানে রায়না। —নিজস্ব চিত্র।

সুনীল নারিনকে শেষ পর্যন্ত কবে পাওয়া যাবে, তা নিয়ে কেকেআর কর্তাদের দুশ্চিন্তা থাকতে পারে। কিন্তু কেকেআর বোলিং নিয়ে তিনি এতটুকু চিন্তায় নেই।

বৃহস্পতিবার ইডেনে তিনি ছিলেন। বাইশ গজে নেমে বুঝতে পেরেছেন নারিন ছাড়াও কেকেআর বোলিং কতটা ভয়ঙ্কর। সুরেশ রায়নার মনে হচ্ছে, নারিন থাকুন বা না থাকুন, কেকেআরের কোনও সমস্যা হবে না।

‘‘আপনারা দেখলেন তো নারিনকে ছাড়া কেকেআরের কোনও সমস্যা হয়নি। যে দলে চুয়াল্লিশ বছর বয়সের হগ এত ভাল খেলল তাদের আর কী চাই। হগের জন্যই ম্যাচটা হাতের বাইরে বেরিয়ে গেল,’’ শুক্রবার দক্ষিণ কলকাতার এক অভিজাত মলে একটি অনুষ্ঠানে এসে বলছিলেন রায়না। সিএসকের নাম্বার থ্রি-র এটাও মনে হচ্ছে, কেকেআরের বোলিংই টুর্নামেন্টের সেরা। বলেও দিলেন, ‘‘এটা সত্যি যে কেকেআরে প্রচুর ভাল ভাল বোলার আছে।’’

অনুষ্ঠানে উপস্থিত সমর্থকদের আব্দারে যেমন এক দিকে অভিনব স্ট্রেচিং করে দেখালেন, তেমনই পাশাপাশি অসংখ্য সেলফিও তুলতে হল রায়নাকে। তার মাঝেই সবলে দিলেন নাইট রাইডার্সের দাপটের পিছনে অন্যতম কারিগর তাদের অধিনায়ক। ‘‘গোতি ভাইকে আমি ভাল ভাবে জানি। ওর সঙ্গে খেলার সময় দেখতাম সব কিছু নিয়ে কতটা সিরিয়াস। ওর আবেগের জন্যই কেকেআর এখন অন্যতম সেরা ফ্র্যাঞ্চাইজি।’’ কেকেআরের যেমন নারিন ছিল না, চেন্নাইও পায়নি রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে। কিন্তু সেই অভাবকে বড় করে দেখছেন না রায়না। বলছেন, ‘‘আমাদের দলে অনেক ভাল তরুণ ক্রিকেটার আছে। নেগি খুব ভাল খেলেছে কেকেআরের বিরুদ্ধে। আইপিএল মানে নতুন প্রতিভাকে সুযোগ দেওয়া যাতে তারা আত্মবিশ্বাস পায় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার,’’ বলছিলেন রায়না।

শেষ পর্যন্ত কোন ফ্র্যাঞ্চাইজির মাথায় আইপিএল আট চ্যাম্পিয়নের মুকুট উঠবে? ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম সেরা বাঁ হাতি ব্যাটসম্যান বলে দিচ্ছেন, এখনই বলাটা ঠিক হবে না। লিগ টেবলের অবস্থা ধরে এখনই বিচার করতে বসলে নাকি ঠকতে হতে পারে। ‘‘আসলে আইপিএল মানেই ওপেন টুর্নামেন্ট। এখনই বলা যায় নাকি কে যাবে সেমিফাইনাল?’’  কিন্তু জাতীয় দলের কোচ— সে  ব্যাপারে তো পছন্দ-অপছন্দ আছে? ‘‘আমাদের কোনও পছন্দ নেই। বোর্ড যাকেই করুক, আমরা মানিয়ে নেব।’’

শুধু একটা ব্যাপার নিশ্চিত করে বলে দিতে পারছেন রায়না। যে, আইপিএলের মধ্যে ভীষণ ‘মিস’ করছেন স্ত্রী প্রিয়ঙ্কা চৌধুরীকে। রায়না চান, জীবনের অন্য ইনিংসে যা-ই হোক, এই ইনিংসটা যেন ঠিকঠাক চলে। বলিলেন, ‘‘জীবনের আর কোনও ইনিংসে যা হোক এই ইনিংসটায় সব সময় সুখী থাকা উচিত।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন