বিশ্বের প্রথম ফুটবলার হিসেবে ইংল্যান্ড, স্পেন ও ইটালিতে লিগ জিতে ইতিহাস গড়েছেন তিনি। কিন্তু কীর্তি গড়ার রাতেই বিতর্কে জড়ালেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো!

শনিবার রাতে ফিয়োরেন্তিনাকে ২-১ হারিয়ে টানা আটবার সেরি আ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার আনন্দে মাঠের মধ্যেই উৎসব শুরু করে দেন জুভেন্তাসের ফুটবলারেরা। রোনাল্ডোকে দেখা গিয়েছে শ্যাম্পেনের বোতলে চুমুক দিচ্ছেন। এই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই বিতর্কের শুরু। অনেকে লিখেছেন, ‘‘রোনাল্ডো মদ্যপান করেন না বলে দাবি করেন ভক্তেরা। কারণ, সি আর সেভেনের বাবা মদ্যপ ছিলেন।’’ কেউ কেউ আবার লিখেছেন, ‘‘এটা কী হচ্ছে? রোনাল্ডো নাকি মদ্যপান করেন না?’’

যাঁকে নিয়ে বিতর্ক, সেই রোনাল্ডো খোশমেজাজেই আছেন। শনিবার রাতে ম্যাচের পরে বলেছেন, ‘‘অভিষেক মরসুমেই ইটালিতে লিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় চেয়ে আনন্দের কিছুই হতে পারে না আমার কাছে।’’ তিনি যোগ করেছেন, ‘‘ইটালির সুপার কাপও জিতেছি। এক জন ফুটবলারের কাছে এর চেয়ে বড় প্রাপ্তি আর কী হতে পারে।’’

তুরিনে ঘরের মাঠে ফিরোন্তিনার বিরুদ্ধে ছ’মিনিটেই পিছিয়ে পড়েছিল জুভেন্তাস। গোল করেন নিকোলা মিলেনকোভিচ। ৩৭ মিনিটে জুভেন্তাসের হয়ে সমতা ফেরান আলেক্স সান্দ্রো। ৫৩ মিনিটে রোনাল্ডো-দের আক্রমণের ঝড় সামলাতে না পেরে নিজের গোলেই বল ঢুকিয়ে দেন ফিয়োরেন্তিনার জার্মান পেজ়েল্লা। গোল করতে পারেননি বলে হতাশ নন পর্তুগাল অধিনায়ক। তবে আয়াখ‌্স আমস্টারডামের কাছে হেরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে ছিটকে যাওয়ার যন্ত্রণা কাঁটার মতো বিঁধে রয়েছে তাঁর মনে। জুভেন্তাসের হয়ে সেরি আ-তে ১৯ গোল করা রোনাল্ডো বলেছেন, ‘‘চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিততে না পারার জন্য দুঃখিত। কিন্তু এই ব্যর্থতা থেকে শিক্ষা নিয়েই আমরা নিজেদের উজ্জীবিত করেছি।’’ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বিদায়ের পরে শেয়ার বাজারে জুভেন্তাসের দর শুধু পড়ে যায়নি, রোনাল্ডোর ভবিষ্যৎ নিয়েও জল্পনা শুরু হয়। ফিয়োরেন্তিনাকে হারিয়ে সেরি আ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার রাতে রোনাল্ডোর ঘোষণা, ‘‘এক হাজার শতাংশ আমি জুভেন্তাসেই থাকছি। ক্লাব ছাড়ার কোনও প্রশ্নই নেই।’’

জুভেন্তাস ম্যানেজার মাসিমিলিয়ানো আলেগ্রি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ব্যর্থতা ভুললেন সেরি আ চ্যম্পিয়ন হয়ে। তিনি বলেছেন, ‘‘চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে ওই ভাবে বিদায় নেওয়াটা যন্ত্রণাদায়ক। কিন্তু অতীত নিয়ে পড়ে থাকলে চলবে না। এই সাফল্য উপভোগ করতে হবে।’’ তিনি যোগ করেছেন, ‘‘জুভেন্তাসের হয়ে আমরা যে ইতিহাস গড়লাম, তা অন্যদের পক্ষে করা খুব কঠিন। ইটালিতে লিগ জেতা একেবারেই সহজ নয়। আমরা সেটাই করে দেখিয়েছি। এর জন্য ফুটবলার, ক্লাব কর্তৃপক্ষ ও সমর্থকদের কাছে কৃতজ্ঞ।’’