• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

গিটার বাজাও আর তাস খেলো, পরামর্শ ব্রেট লি-র

Brett Lee-MS Dhoni
চর্চায়: আমিরশাহির পরিবেশে সুবিধে ধোনিদের, বলছেন লি (বাঁ-দিকে)।

আসন্ন আইপিএলে খেতাব জয়ের অন্যতম ফেভারিট দল মহেন্দ্র সিংহ ধোনির নেতৃত্বাধীন চেন্নাই সুপার কিংস। এমনই মনে করছেন প্রাক্তন অস্ট্রেলীয় পেসার ব্রেট লি।

খেলা সংক্রান্ত একটি চ্যানেলের অনুষ্ঠানে লি বলেছেন, ‍‘‍‘সিএসকে-র ক্রিকেটাররা অনেক অভিজ্ঞ। দলে তরুণ মুখ থাকলেও অনেক ক্রিকেটারই একসঙ্গে অনেক দিন সিএসকে-র হয়ে খেলছে। এটাই ওদের বড় শক্তি।’’

চলতি বছরেও সিএসকে তাদের মূল দলটিকে ধরে রেখেছে। রয়েছেন তাদের সাফল্য এনে দেওয়ার অন্যতম কারিগর, বর্ষীয়ান অধিনায়ক ধোনি। এ ছাড়াও সুরেশ রায়না, ডোয়েন ব্র্যাভো, ইমরান তাহির, রবীন্দ্র জাডেজারা আছেন। থাকছে শেন ওয়াটসন, হরভজন সিংহের অভিজ্ঞতাও। গত ১২টি আইপিএলে সব চেয়ে বেশি দাপট দেখিয়েছে চেন্নাই সুপার কিংস ও মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। এ পর্যন্ত এই দুই দলই মিলিত ভাবে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে সাত বার। যার মধ্যে সিএসকে-র ট্রফি ক্যাবিনেটে রয়েছে তিনটি আইপিএল। 

সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে সফল হওয়ার মতো দুর্দান্ত স্পিন আক্রমণও মজুদ সিএসকে-তে। যে বিভাগ সামলানোর জন্য রয়েছেন হরভজন, তাহির, জাডেজা, মিচেল স্যান্টনার, কর্ণ শর্মারা। লি-র কথায়, ‍‘‍‘আমিরশাহির উইকেটে এই বোলারেরা দারুণ কার্যকর হবে। ওখানে এখন তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রির আশেপাশে। বল ঘোরার সম্ভাবনা প্রবল। ফলে চেন্নাইয়ের মতো পরিবেশ পাবে সিএসকে। এই কারণেই ওরা ফেভারিট।’’

আইপিএলে তাঁর পুরনো দল কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের বর্তমান কোচ অনিল কুম্বলেকে নিয়েও উচ্ছ্বসিত লি। বলেছেন, ‍‘‍‘অনিল কুম্বলের মতো বিশাল অভিজ্ঞতাসম্পন্ন কেউ দলের সঙ্গে থাকলে ক্রিকেটারেরাই উপকৃত হবে। ওদের দলটা বেশ ভাল। তাই এ বার পঞ্জাবের সাফল্য দেখার জন্যও মুখিয়ে রয়েছি।’’ 

এ বার আইপিএলে সম্পূর্ণ নতুন অভিজ্ঞতার মুখে পড়বেন ক্রিকেটারেরা। তাঁদের দীর্ঘদিন থাকতে হবে জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে। সেখানে কী করে একঘেয়েমি দূর করতে হবে, তারও পরামর্শ দিয়েছেন লি। 

তাঁর কথায়, ‍‘‍‘স্বাস্থ্য-সংক্রান্ত নিয়ম মেনে করোনা সংক্রমণ থেকে দূরে থাকতে হবেই। কাজেই কোনও ক্রিকেটারের হোটেলের বাইরে যাওয়া সমর্থনযোগ্য নয়।’’ যোগ করেছেন, ‍‘‍‘এটা দল ও সমর্থকদের জন্যও ভাল হবে। কারণ আইপিএল বন্ধ হয়ে গেলে সেটা বিপর্যয় হবে।’’ লি-র কথায়, ‍‘‍‘হোটেলের মধ্যেই মজায় থাকুক ক্রিকেটারেরা। আট সপ্তাহের এই প্রতিযোগিতার মাঝে একা লাগলে গিটার বাজিয়ে সেই অবসাদ কাটানো যেতে পারে। খেলা যেতে পারে তাস। সে ক্ষেত্রে বাইরে গল্‌ফ খেলতে যাওয়ার প্রয়োজন নেই।’’

আইপিএল খেলতে ২১ অগস্ট সংযুক্ত আরব আমিরশাহি উড়ে যাবে সিএসকে। তার আগে তামিলনাড়ু সরকারের থেকে অনুমতি নিয়ে ১৫ অগস্ট থেকে চিদম্বরম স্টেডিয়ামে অনুশীলন শুরু করতে চলেছে তারা। ১৪ অগস্ট বিশেষ বিমানে চেন্নাই উড়িয়ে আনা হবে ধোনি, হরভজন, রায়না, অম্বাতি রায়ডুদের। টিম ম্যানেজমেন্টের তরফে বলা হয়েছে, ‍‘‍‘চেন্নাই আসার দু’দিন আগে করোনা পরীক্ষা করা হবে। নেগেটিভ হলে তবেই চেন্নাই আনা হবে। সে ক্ষেত্রে এখানে ১৪ দিন নিভৃতবাসে থাকার প্রয়োজন নেই।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন