দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজ জয়ে তাঁর বড় ভূমিকা ছিল। কিন্তু সিরিজ জয়ের দিনই তাঁকে নির্বাসিত করা হল। তিনি দানুষ্কা গুনাথিলকা। শ্রীলঙ্কা দলের অন্যতম ওপেনার। নরউইগানের এক মহিলা অভিযোগ করেন গুনাথিলকার বন্ধু তাঁর সামনেই সেই মহিলার শ্লীলতাহানি করেছে হোটেলের ঘরে।

গুনাথিলকার বন্ধুর নাম জানা না গেলেও, সেই মহিলার অভিযোগ, তাঁরা দু’জন ছিলেন। তাঁদের নিয়েই কলম্বোর হোটেলে যান গুনাথিলকা ও তাঁর বন্ধু। রবিবারের ঘটনা। এর পর তাঁদের মধ্যে এক মহিলা সেই দ্বিতীয় ব্যাক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ আনেন। যিনি ব্রিটিশ পাসপোর্ট ব্যবহারকারী শ্রীলঙ্কান। এর পর পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করে। স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে, নরউইগান ট্যুরিস্ট এক মহিলার অভিযোগের ভিত্তিতে ২৬ বছরের সেই ব্যাক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আমাদের তদন্ত চলছে।’’

তিনি আরও জানিয়েছেন, গুনাথিলকার বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ নেই। রবিবার রাতেই এই অভিযোগের উপর ভিত্তি করে এই ওপেনারকে নির্বাসিত করে দল। যদিও তাঁকে খেলতে দেওয়া হয়। যদিও শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের নিয়ম অনুযায়ী মধ্যরাতের মধ্যেই সব প্লেয়ারকে হোটেলের ঘরে ফিরতে হবে এবং সঙ্গে কোনও অতিথি থাকা চলবে না। যতদিন না তদন্তের রিপোর্ট আসছে ততদিন গুনাথিলকার পারিশ্রমিকও আটকে রাখা হচ্ছে।

আরও পড়ুন
দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে টেস্ট সিরিজ জয় শ্রীলঙ্কার