তিন বছর পরে কলকাতা লিগের মোহনবাগান বনাম ইস্টবেঙ্গল বড় ম্যাচ হতে চলেছে যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে। রবিবারের সেই ডার্বি ম্যাচের ৪৮ ঘণ্টা আগেই ‘সব টিকিট শেষ’ বলে জানিয়ে দিয়েছেন আইএফএ সচিব উৎপল গঙ্গোপাধ্যায়। টিকিটের হাহাকার তুঙ্গে। শুক্রবার সকাল থেকে বৃষ্টিতে ভিজে লাইন দিয়েও অনেকেই বাড়ি ফিরেছেন হতাশ হয়ে। টিকিট না পেয়ে ইডেন ও সেন্ট্রাল অ্যাভেনিউয়ে সাময়িক পথ অবরোধও করেন তাঁরা। তাঁদের দাবি, অনলাইনে ছাড়া ১৭ হাজার টিকিটের একটা বড় অংশই  নাকি চলে গিয়েছে কালোবাজারিদের হাতে। আইএফএ সচিবও সাংবাদিক সম্মেলনে মেনে নেন, অনলাইনে টিকিট কাটার কোনও নির্দিষ্ট সংখ্যা না থাকায় সমস্যা হয়েছে।

শুক্রবার দুই দলের মিলিত সাংবাদিক সম্মেলনেও ছিল অব্যবস্থা। আইএফএ-র তরফে প্রথমে জানানো হয়েছিল, এই সাংবাদিক সম্মেলন হবে শনিবার। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা হঠাৎ শুক্রবার বিকেলে হয়। ইস্টবেঙ্গল কোচ বাস্তব রায় ও অধিনায়ক সামাদ আলি মল্লিক হাজির ছিলেন। মোহনবাগান কোচ ও অধিনায়ক ছিলেন না। তাদের ফুটবল সচিব বলেন, ‘‘আমরা দেরিতে জানতে পারায় অনুশীলন বাতিল করা সম্ভব হয়নি।’’