ফের বলের অবস্থা পরিবর্তন নিয়ে বিতর্ক, যার জেরে চলতি টেস্টের তৃতীয় দিনের শুরুতে মাঠে নামতে রাজি হলেন না শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটাররা। সেন্ট লুসিয়ায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে তাদের দ্বিতীয় টেস্টের তৃতীয় দিন দুই আম্পায়ার ইয়ান গুল্ড ও আলিম দার শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে বলের অবস্থা পরিবর্তনের অভিযোগ জানান। ফলে তৃতীয় দিন খেলা শুরুর আগে সেই বল বদলের সিদ্ধান্ত নেন।

আম্পায়ারদের এই সিদ্ধান্ত শুনে দীনেশ চান্দিমালরা মাঠে নামতে অস্বীকার করেন। ড্রেসিংরুমে ম্যাচ রেফারি জাভাগল শ্রীনাথের সঙ্গে তর্ক জুড়ে দেন অধিনায়ক চান্দিমাল ও কোচেরা। বলের অবস্থা পরিবর্তন করার অপরাধে তাঁদের বিপক্ষকে যে পাঁচ রানের পেনাল্টি দেওয়া হয়, তাতেও ঘোর আপত্তি জানান তাঁরা। শ্রীলঙ্কার ২৫৩ রানের জবাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১১৮-২ ছিল তখন।

সকাল সাড়ে ন’টায় খেলা শুরু হওয়ার কথা ছিল। শ্রীলঙ্কা দলের এই আপত্তিতে খেলা শুরু হয় সাড়ে এগারোটায়। মাঠে নেমেও প্রায় ৪০ মিনিট খেলতে না চেয়ে তর্ক চালিয়ে যান শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটাররা। পরে বল বদলেই খেলা শুরু হয়। শ্রীলঙ্কার সরকারের বিশেষ ক্রিকেট পরিচালন কমিটি এর বিরুদ্ধে সরকারি ভাবে প্রতিবাদ জানানোর কথা ভাবছে বলে জানা গিয়েছে।

শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে ক্রিকেটারেরা কোনও ভাবেই ভুল করেননি। সেখানে লেখা হয়েছে, ‘‘ক্রিকেটের স্পিরিট বজায় রাখার জন্য ক্রিকেটারদের মাঠে নামতে অনুরোধ করা হয়েছে। এ কারণে দেশের কোনও ক্রিকেটারের শাস্তি যাতে না হয় সেটা দেখারই চেষ্টা করব। আশা করছি কোনও ক্রিকেটারকে অকারণে শাস্তি দেওয়া হবে না।’’

শ্রীলঙ্কার গড়া ২৫৩ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৭১ ওভারে আপাতত ওয়েস্ট ইন্ডিজের রান চার উইকেট হারিয়ে ২০৫। ৬১ রান করেছেন ডেভন স্মিথ। সেই জায়গায় থেকে ম্যাচের হাল ধরেন রস্টন চেজ ও শেন ডাউরিচ। এই জায়গা থেকে চান্দিমালরা ফিরে আসতে পারেন কি না সেটাই দেখার।