ইস্টবেঙ্গল-১ রেনবো-০

রেনবোকে হারিয়ে কলকাতা লিগ জয়ের আশা জিইয়ে রাখল ইস্টবেঙ্গল। শুক্রবার রেনবোকে ১-০ গোলে হারিয়ে লিগ টেবিলে দুই নম্বরে উঠে এলো লাল-হলুদ শিবির।

আর সেই সঙ্গেই হাজারো সমালোচনা দূরে সরিয়ে চলতি মরসুমে প্রথম গোল পেলেন ইস্টবেঙ্গলের স্প্যানিশ তারকা ফুটবলার মার্কোস দে লা এসপারা। এদিন বৃষ্টিভেজা ইস্টবেঙ্গল মাঠে চলতি লিগে প্রথমবার নৈশালোকে রেনবোর বিরুদ্ধে নামে আলেয়ান্দ্রোর  ছেলেরা। ইস্টবেঙ্গল শিবিরের প্রাক্তনী সৌমিক দে’র রেনবো ইস্টবেঙ্গলকে আটকে দিতে পারে কি না তা নিয়ে উৎসাহ ছিল ময়দানে। ম্যাচের শুরু থেকেই একের পর এক আক্রমণ শানাতে থাকে লাল-হলুদ শিবির। কিন্তু কর্দমাক্ত মাঠে বলের উপর নিয়ন্ত্রণ কঠিন হয়ে দাঁড়ায় দুই পক্ষের কাছেই।

ম্যাচের ৩৫ মিনিটের মাথায় পেনাল্টি শটে রেনবোর জালে বল জড়িয়ে দেন স্প্যানিশ তারকা মার্কোজ এস্পাডা। এক গোলে এগিয়ে থাকা ইস্টবেঙ্গলকে এরপর আর ফিরে তাকাতে হয়নি। তবে গোলের ব্যবধান আরও বাড়তে পারত। বহুবার সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি মার্কোজ। ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে রেনবো আক্রমণে উঠে এলেও ইস্টবেঙ্গল রক্ষণের কাছে থমকে যায় সৌমিক দে’র ছেলেরা।

দু’দিন আগেই মহমেডানের কাছে হেরে চলতি লিগ থেকে বিদায় নিয়েছে মোহনবাগান। আজ রেনবোর বিরুদ্ধে মরিয়া লড়াই করে জয় ছিনিয়ে নেয় লাল-হলুদ শিবির। চলতি মরসুমে ইস্টবেঙ্গল শিবিরে যোগ দিয়ে সমর্থকদের মনে প্রত্যাশা জাগিয়েছিলেন মার্কোজ ডেল এস্পাডা। তবে কলকাতা ময়দানে স্প্যানিশ ম্যাজিক দেখিয়ে গোল করতে পারছিলেন না। আজ যেন সমর্থকদের চিন্তার ভার অনেকটাই লাঘব করলেন মার্কোস দে লা এসপারা।

আরও পড়ুন: শেষ তিন ম্যাচই অগ্নিপরীক্ষা ডিকাদের

আরও পড়ুন: ব্রাত্য তীর্থঙ্করই ডোবালেন নৌকা

জয় নিশ্চিত জেনে ম্যাচের কয়েক মিনিট বাকি থাকতেই গ্যালারিজুড়ে জ্বলে ওঠে মশাল। তবে এখনও লড়াই যে অনেকটাই বাকি তা বিলক্ষণ  জানেন কোচ আলেয়ান্দ্র মেনেন্দেজের । ৯ ম্যাচে পকেটে ১৭ পয়েন্ট নিয়ে লিগ তালিকায় দুই নম্বরে ইস্টবেঙ্গল উঠে এলেও । এক ম্যাচ কম খেলে ১৭ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলে শীর্ষে রয়েছে পিয়ারলেস । শেষ তিন ম্যাচের মধ্যে দু’টি ম্যাচ জিতলেই চ্যাম্পিয়ন হবেন ক্রোমারা। লিগ জিততে হলে বাকি ম্যাচ গুলো জেতা ছাড়াও পিয়ারলেসের পয়েন্ট হারানোর দিকে তাকিয়ে থাকতে হবে ইস্টবেঙ্গলকে। তাই গ্যালারির জ্বলে ওঠা মশালের আলো কি দিশা দেখাবে লাল-হলুদ শিবিরকে? উত্তরের অপেক্ষায় গোটা ময়দান।