আই লিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লড়াইয়ে ছুটছে তাঁর দল। লিগে সেই আলেসান্দ্রো মেনেন্দেসের দলের বাকি রয়েছে এখনও ছয় ম্যাচ। সেই ছয় খেলায় যাতে ফুটবলারদের চোট-আঘাত, ফিটনেস সমস্যা প্রকট না হয়ে দাঁড়ায়, তার জন্য প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন লাল-হলুদ শিবিরের স্পেনীয় কোচ আলেসান্দ্রো।  

তুষার-স্নাত শ্রীনগরে গিয়ে রিয়াল কাশ্মীর ম্যাচ খেলতে না হওয়ায়, আপাতত কিছুটা স্বস্তি লাল-হলুদ শিবিরে। এ দিনই হওয়ার কথা ছিল এই ম্যাচ। ইস্টবেঙ্গল কোচ রবিবার জোর দেন ফিটনেস অনুশীলনে। দেখা যায়, এনরিকে এসকুয়েদা, লালরাম চুলোভা, জনি আকোস্তারা মাটিতে উপুড় হয়ে শুয়ে রয়েছেন। তাঁদের পা শক্ত করে ধরে রেখেছেন কোনও সতীর্থ। সেই অবস্থায় শরীরে উর্ধ্বাংশ উপরে তুলে হেড করছিলেন তাঁরা। অন্য দিকে, জবি জাস্টিন-সহ কোনও কোনও ফুটবলার ব্যস্ত ছিলেন শরীরের ভারসাম্য রক্ষার অনুশীলনে। ইস্টবেঙ্গল কোচের যুক্তি, বাকি ছয় ম্যাচে ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে গিয়ে খেলতে হবে। তাপমাত্রা ক্রমে বাড়বে। দলের ফিটনেস লেভেল শীর্ষে থাকতে হবে। আগামী দু’সপ্তাহে ইস্টবেঙ্গলকে খেলতে হবে তিনটি ম্যাচ।

এ দিকে, গোয়া থেকে চার্চিল ব্রাদার্স ম্যাচ ড্র করে এ দিনই কলকাতায় ফিরল মোহনবাগান। শনিবার ম্যাচের আগে গাড়ি দুর্ঘটনায় জখম হয়েছিলেন মোহনবাগানের ফুটবল সচিব। তাঁকে এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।