• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

গোয়ায় আজ আকর্ষণ সুনীল বনাম কোরোমিনাস দ্বৈরথ

 Sunil Chhetri
মহড়া: আশিককে নিয়ে সুনীলের ব্যস্ততা। বেঙ্গালুরুর অনুশীলনে। নিজস্ব চিত্র

Advertisement

এফসি গোয়ার আইএসএলে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বপ্ন প্রথমবার ধ্বংস করেছিল চেন্নাইয়িন এফসি। ২০১৫ সালে। গত মরসুমে সুনীল ছেত্রীদের বেঙ্গালুরু এফসি-র বিরুদ্ধে হেরে দ্বিতীয়বার খেতাব হাতছাড়া করার যন্ত্রণা নিয়ে মাঠ ছেড়েছিলেন ফেরান কোরোমিনাসেরা। 

প্রথম ম্যাচে ঘরের মাঠে চেন্নাইকে ৩-০ বিধ্বস্ত করে আইএসএলে অভিযান শুরু করেছে গোয়া। এ বার বেঙ্গালুরুকে হারিয়ে গত মরসুমে ফাইনালে হারের বদলা নিতে মরিয়া তারা। যদিও আইএসএলে বেঙ্গালুরুর বরাবরই সমস্যায় ফেলেছে গোয়াকে। এখনও পর্যন্ত পাঁচবার মুখোমুখি হয়েছে দু’দল। চার বারই জিতেছেন সুনীলেরা। মাত্র একবার জিতেছে গোয়া। শুধু তাই নয়। বেঙ্গালুরুর বিরুদ্ধে এখনও পর্যন্ত মোট ১১টি গোল খেয়েছে তারা। করেছে মাত্র পাঁচটি। 

পরিসংখ্যানের নিরিখে এগিয়ে সুনীলেরা। কিন্তু চলতি আইএসএলে পারফরম্যান্সের বিচারে সুবিধেজনক জায়গায় গোয়া।  আগের ম্যাচে চেন্নাইকে উড়িয়ে দিয়েছে গোয়া। সোমবারও নিজেদের মাঠে খেলবে বিরাট কোহালির দল। যদিও অতীত নিয়ে একেবারেই ভাবতে রাজি নন গোয়ার কোচ সের্খিয়ো লোবেরা। সাংবাদিক বৈঠকে তিনি খোলাখুলি বলেছেন, ‘‘গত মরসুমের ফাইনাল আমার কাছে অতীত। দুর্দান্ত খেলেছিল আমার ছেলেরা। আশা করছি, এই ম্যাচেও নিজেদের উজাড় করে দেবে ওরা।’’ গত বারের ফাইনালে অতিরিক্ত সময়ে গোয়া রক্ষণের ব্যর্থতায় রাহুল ভেকে গোল করে জিতিয়েছিলেন বেঙ্গালুরুকে। সেই যন্ত্রণা এখনও ভুলতে পারেননি লোবেরো। তাঁর কথায়, ‘‘রক্ষণের ভুলভ্রান্তি এ বার অনেকটাই শুধরে নিয়েছি।’’ 

বেঙ্গালুরুর শুরুটা একেবারেই প্রত্যাশা অনুযায়ী হয়নি। ঘরের মাঠে প্রথম ম্যাচে নর্থইস্ট ইউনাইটেড এফসি-র বিরুদ্ধে আটকে যান সুনীলেরা। সোমবার গোয়াকে হারিয়েই দীপাবলি পালন করতে চান গত বারের চ্যাম্পিয়নেরা। কিন্তু কোচ কার্লেস কুদ্রাতের অস্বস্তি বাড়াচ্ছে ফুটবলারদের গোল নষ্ট করার প্রবণতা। সাংবাদিক বৈঠকে চিন্তিত কুদ্রাত বলেছেন, ‘‘নর্থইস্টের বিরুদ্ধে আগের ম্যাচে মানুয়েল ওনৌ, আশিক কুরুনিয়ন, নিশু কুমার, উদান্ত সিংহ ও সুনীল গোলের একাধিক সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি। তবে অনেক সময় এ রকম হতেই পারে। কিছুতেই বল গোল লাইন পেরোতে পারে না। আমাদের ক্ষেত্রেও সেটাই হয়েছে।’’ তিনি যোগ করেন, ‘‘ইতিবাচক দিক হচ্ছে, আগের ম্যাচে আমরা প্রচুর গোলের সুযোগ তৈরি করেছিলাম। তবে প্রথম ম্যাচে পয়েন্ট নষ্ট করে হতাশ হওয়ার কিছু নেই। লিগ সবে শুরু হয়েছে। এখনও অনেক ম্যাচ বাকি। ’’

গোয়ার সাম্প্রতিক ফর্মও যে চিন্তা বাড়াচ্ছে, গোপন করেননি কুদ্রাত। তাঁর কথায়, ‘‘গোয়া দুর্দান্ত দল। ওদের বিরুদ্ধে খেলা সব সময়ি কঠিন। দীর্ঘ দিন ধরে একই দল ধরে রেখেছে গোয়া। আশা করছি, দারুণ প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ম্যাচ হবে।’’ 

সোমবার আইএসএলে: এফসি গোয়া বনাম বেঙ্গালুরু এফসি (সন্ধে ৭.৩০, স্টার স্পোর্টস টু চ্যানেলে)।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন