• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আমাদের মহান ক্রিকেটারদের নিয়ে একদম ভুলভাল কথা বলবে না, সহবাগকে হুঙ্কার প্রাক্তন পাক পেসারের

Sehwag
বীরুকে আক্রমণ করলেন প্রাক্তন পাক বোলার।

Advertisement

শোয়েব আখতারের সঙ্গে ঠোকাঠুকি চলছিলই বীরেন্দ্র সহবাগের। এ বার তার মধ্যেই ঢুকে পড়লেন প্রাক্তন পাক ক্রিকেটার রানা নাভেদ উল হাসান। বীরুকে আক্রমণ করে রানা নাভেদ তাঁর ইউটিউব চ্যানেলে বলেন, কিংবদন্তি পাক ক্রিকেটারদের সম্পর্কে একটা খারাপ কথাও আর বরদাস্ত করা হবে না।

২০১৬ সালে কমেডিয়ান বিক্রম সাথেয়ার সঙ্গে এক চ্যাট শোয়ে সহবাগ বলেছিলেন, “শোয়েব আখতারের এখন ভারতে ব্যবসার প্রয়োজন। তাই ও আমাদের ভাল বন্ধু হয়ে উঠেছে। আমাদের তাই এত প্রশংসা করছে। শোয়েব আখতারের যে কোনও সাক্ষাৎকারে আপনারা দেখবেন যে ভারতের প্রশংসা করে কথা বলছে। যখন খেলত, তখন কিন্তু এগুলো বলত না।”

‘নজফগড়ের নবাব’-এর এ হেন মন্তব্যকে শোয়েব রসিকতা হিসেবেই নেন। নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলে ‘রাওয়ালপিণ্ডি এক্সপ্রেস’ বলেছেন, “আমার বন্ধু সহবাগের একটা পুরনো ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে। আপনারা জানেন, সহবাগ খুবই ক্যাজুয়াল। যে বেশির ভাগ সময়ই সিরিয়াস ভঙ্গিতে কথা বলে না।’’

আরও পড়ুন: হিটম্যানের জোড়া ছয়, সুপার ওভারে নাটকীয় জয় ভারতের

এ রকম পরিস্থিতিতে রানা নাভেদ সুর চড়িয়ে বীরুকে আক্রমণ করে বসেন নিজের ইউটিউব চ্যানেলে। তিনি বলেন, ‘‘বছর দু’য়েক আগে তুমি এ ধরনের মন্তব্য করেছিলে। আমরা কোনও প্রতিক্রিয়া দেখাইনি। এখন আমরা তোমাকে পাল্টা দিতে চাই। খবরদার আমাদের মহান ক্রিকেটারদের সম্পর্কে একটা খারাপ কথা যদি আর বলো। আমার সিনিয়র ক্রিকেটারদের শ্রদ্ধা করি। আমাদের লিজেন্ডদের নিয়ে একদম ভুলভাল কথা বলবে না। কোনও টিভি চ্যানেলে বসার জন্য দু’তিন মাস বাদে বাদেই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে উল্টোপাল্টা মন্তব্য করো না।’’

দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত এমসিএল-এ সহবাগের দলে খেলেছিলেন রানা। সেই প্রসঙ্গ উত্থাপন করে পাকিস্তানের প্রাক্তন বোলার বলেন, ‘‘আমরা এমসিএল জিতেছিলাম। আমি সহবাগকে কৃতিত্ব দিয়েছিলাম। কারণ সেই টুর্নামেন্টে সহবাগ ক্যাপ্টেন ছিল। ভারতের টিভি চ্যানেলে বসার জন্য তোমার প্রশংসা করিনি।’’

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন