• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বর্ণবিদ্বেষ: রাহিমের পাশে পেপ, চার দর্শককে শাস্তি ক্লাবের

Sterling
রাহিম স্টার্লিং।—ছবি এএফপি।

Advertisement

ম্যাঞ্চেস্টার সিটির ম্যানেজার পেপ গুয়ার্দিওলা বলে দিলেন, শুধু ফুটবল নয়, বিশ্বের সর্বত্র বর্ণবিদ্বেষ রয়েছে। তাঁর ক্লাবের কৃষ্ণাঙ্গ ফুটবলার রাহিম স্টার্লিংয়ের অভিযোগের প্রসঙ্গে এমন কথা বললেন পেপ। ম্যান সিটির ফরোয়ার্ড ইপিএলে চেলসির বিরুদ্ধে ম্যাচের পরে অভিযোগ করেন, খেলা চলাকালীন তাঁর প্রতি বর্ণবিদ্বেষমূলক আচরণ করে কিছু দর্শক। এই অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তদন্তও শুরু করেছে। তদন্ত শেষ হওয়ার আগেই চেলসি ক্লাব তাদের চার জন সমর্থকের অনির্দিষ্ট কালের জন্য স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে খেলা দেখার সুযোগ কেড়ে নিয়েছে।

এই ঘটনা নিয়ে বলতে গিয়ে গুয়ার্দিওলার মন্তব্য, ‘‘সর্বত্র বর্ণবিদ্বেষ রয়েছে। শুধু ফুটবলে নয়। এই অন্যায়ের বিরুদ্ধে আমাদের সবাইকে লড়াই করতে হবে। চেষ্টা করতে হবে, আগামী দিনে পৃথিবীটাকে যাতে আর একটু সুন্দর করা যায়।’’ এ দিকে চেলসি যাদের খেলা দেখায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে তাদের একজন কলিন উইংয়ের বয়স কিন্তু ৬০ বছর। কলিন এখন ঘটনার জন্য অনুতপ্ত। তার প্রতিক্রিয়া, ‘‘আমি নিজেই নিজের আচরণে লজ্জিত। রাহিমের কাছে নিঃশর্ত ভাবে ক্ষমা চাইছি। আশা করি, ও একদিন আমার থেকেও ভাল একজন মানুষ হয়ে উঠবে। আমি দোষও স্বীকার করছি।’’

চেলসির ক্লাবের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘‘ক্লাবের কেউ এই ধরনের জঘন্য ঘটনা ঘটালে তার বিরুদ্ধে কঠিনতম ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ বারের ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে পুলিশের তদন্তে আমরা সব রকমের সহযোগিতাও করব।’’ চেলসির এ হেন পদক্ষেপে খুশি গুয়ার্দিওলা বলেছেন, ‘‘চেলসি যা করছে তার জন্য ওদের ধন্যবাদ। আমাদের ক্লাবের কেউ এ রকম কিছু করলেও একই রকম কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’’ সঙ্গে রাহিমকে নিয়ে পেপের কথা, ‘‘ওর মতো ছেলে হয় না। বহু যুগ আগে কৃষ্ণাঙ্গদের প্রতি যে বৈষম্য বা জঘন্য ব্যবহার করা হত, এখন তা কোথাও ঘটলে বিশ্বাস করাই  কঠিন। এখন আমাদের একটাই কাজ। সমানাধিকারের জন্য সংগ্রাম করা।’’ ম্যাঞ্চেস্টার সিটির আর এক ফুটবলার লেরয় সানেও বলেছেন, এ রকম ঘটনা হামেশাই ঘটে। সঙ্গে জানিয়েছেন, তিনিও পুরোপুরি রাহিমের পাশেই থাকবেন। তবে গুয়ার্দিওলা রাহিমকে সাবধানও করেছেন, ‘‘আমি ভাল করেই জানি যে ও সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয় ভাবে অংশ নেয়। এটায় খারাপ কিছু দেখি না। তবে এমন কিছু বলা উচিত না যাতে ওর ব্যক্তিগত নিরাপত্তা বিঘ্নিত হয়। সেটা ওকেও বলেছি। আশা করি রাহিম আমার কথা শুনবে।’’ আর লেরয় সানের কথা, ‘‘রাহিম যা বলেছে তাতে কোনও ভুল নেই। একই অভিজ্ঞতা ওর মতো অনেকেরই হয়েছে। আমার সঙ্গেও একই ব্যবহার অনেকে করেছে। তবে ও খুবই শক্তিশালী মনের ছেলে। এই ধরনের পরিস্থিতি কী করে সামলাতে হয় ভাল করেই জানে।’’

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন