• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ডিডিসিএ-তে হাতাহাতি, সৌরভের হস্তক্ষেপ চান গম্ভীর

Gautam Gambhir urges BCCI president Sourav Ganguly to dissolve DDCA
উত্তপ্ত: দিল্লি ক্রিকেট সংস্থার আধিকারিকদের সেই হাতাহাতি। টুইটার

Advertisement

যে রাজ্য থেকে বিরাট কোহালি, বীরেন্দ্র সহবাগ, গৌতম গম্ভীরের মতো ক্রিকেটার বেরিয়েছে, সেই রাজ্য সংস্থার কর্তারা জড়িয়ে পড়লেন হাতাহাতিতে। দিল্লি ক্রিকেট সংস্থার (ডিডিসিএ) বার্ষিক সাধারণ সভা চলাকালীন নির্লজ্জের মতো মারামারি করেন সংস্থার কর্তারা। যে হাতাহাতির ভিডিয়ো ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এর পরে গম্ভীরের মতো প্রাক্তন ক্রিকেটার বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের কাছে আর্জি জানিয়েছেন, ডিডিসিএ-কে ভেঙে দিতে।

রবিবার ডিডিসিএ-র বৈঠক চলাকালীন শাসক গোষ্ঠী এবং বিরোধী পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে হাতাহাতি হয়। সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, শাসক গোষ্ঠীর যুগ্ম সচিব রাজন মানচন্দাকে থাপ্পড় মারেন বিরোধীপক্ষের মাকসুদ আলম। এর পরে দু’পক্ষের মধ্যে ঘুসোঘুসি শুরু হয়।

হাতাহাতির এই ভিডিয়ো সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ার পরে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা যায়। ওই ভিডিয়ো টুইট করে গম্ভীর লেখেন, ‘‘ডিডিসিএ অল আউট হয়ে গেল লজ্জাজনক শূন্য করে। দেখুন, কিছু অপরাধী কী ভাবে একটা প্রতিষ্ঠানকে হাস্যাস্পদ করে তুলেছে। বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, বোর্ড সচিব জয় শাহের কাছে আবেদন করছি, এই মুহূর্তে যেন ডিডিসিএ-কে ভেঙে দেওয়া হয়। আর যারা এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত, তাদের যেন আজীবন নির্বাসনে পাঠানো হয়।’’

আরও পড়ুন: ‘অন্যদের মতো টাকার জন্য তো দেশকে বেচিনি’

ডিডিসিএ-র তরফে আবার বিবৃতিতে তাদের সদস্যদের ধন্যবাদ দেওয়া হয়েছে তীব্র ঠান্ডা অগ্রাহ্য করে বৈঠকে আসার জন্য। সরকারি বিবৃতিতে বৈঠকে হাতাহাতির কথা কোথাও উল্লেখ করা হয়নি। এই বৈঠকেই বেছে নেওয়া হয়েছে ডিডিসিএ-র নতুন অম্বাডসম্যানকে। রজত শর্মা ইস্তফা দেওয়ার পরে এই মুহূর্তে দিল্লি ক্রিকেট সংস্থার কোনও প্রেসিডেন্ট নেই। খুব তাড়াতাড়ি তাদের নতুন প্রেসিডেন্ট বেছে নেওয়ার কথা। 

এ দিন আবার চার সদস্যের শৃঙ্খলারক্ষা কমিটি তৈরি করেছে ডিডিসিএ। কয়েক দিন আগে কলকাতায় এক মহিলা হোটেলকর্মীর সঙ্গে অভব্যতা করার অভিযোগ ওঠে দিল্লির অনূর্ধ্ব ২৩ দলের দুই ক্রিকেটার— ব্যাটসম্যান লক্ষ থারেজা এবং পেসার কুলদীপ যাদবের বিরুদ্ধে। বাংলার বিরুদ্ধে সি কে নাইডু ট্রফির ম্যাচ শুরুর আগের দিন এই ঘটনা ঘটে। যার পরে ওই দুই ক্রিকেটারকে দিল্লি ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। সব মিলিয়ে দিল্লিতে এখন পুরো ডামাডোল।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন