নজির গড়লেন ভারতের জিএস লক্ষ্মী। আইসিসি-র প্রথম মহিলা ম্যাচ রেফারি হলেন তিনি। 

৫১ বছরের লক্ষ্মীকে ২০০৮-০৯ মরসুমে মহিলাদের ঘরোয়া ক্রিকেটে প্রথম বার ম্যাচ রেফারি হিসেবে কাজ করতে দেখা গিয়েছিল।  ১৯৮৬ সাল থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত তিনি ক্রিকেট খেলেছেন। খেলোয়াড় জীবনে লক্ষ্মী ছিলেন ডান হাতি ব্যাটসম্যান। বল হাতে ভাল আউট সুইং করাতে পারতেন লক্ষ্মী।  এ বার আইসিসি-র কাছ থেকে তিনি পেলেন বড় সম্মান। লক্ষ্মী বলেছেন, ‘‘আন্তর্জাতিক প্যানেলে আমাকে নির্বাচিত করা হয়েছে, এটা নিঃসন্দেহে বড় সম্মান।’’

ক্রিকেটার হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে খেলেছেন এবং ম্যাচ রেফারি হিসেবেও কাজ করেছেন ঘরোয়া ক্রিকেটে। সেই অভিজ্ঞতা তিনি এ বার ম্যাচ রেফারি হিসেবে কাজে লাগাবেন বলে জানিয়েছেন লক্ষ্মী। আইসিসি-র সিনিয়র ম্যানেজার অ্যাড্রিয়ান গ্রিফিত মহিলা ম্যাচ রেফারি নিয়োগকে স্বাগত জানিয়েছেন। যোগ্যতার মাপকাঠিতেই লক্ষ্মীকে নিয়োগ করা হয়েছে বলে জানান গ্রিফিত।