অসাধারণ লড়াই করেও শেষরক্ষা হল না এইচ এস প্রণয়ের। নিউজ়িল্যান্ড ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনালে তিনি হেরে গেলেন জাপানের কান্তা সুনেইয়ামার কাছে। প্রণয়ের হারের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় ভারতের লড়াইও শেষ হয়ে গেল। 

অকল্যান্ডে শুক্রবার অবাছাই প্রণয় কিন্তু প্রথম গেম দারুণ ভাবে ২১-১৭ জেতেন। কিন্তু পঞ্চম বাছাই এবং বিশ্বের এগারো নম্বর সুনেইয়ামা দ্বিতীয় ও নির্ণায়ক গেম জিতে নেন ২১-৫, ২১-১৪। দু’জনের ম্যারাথন লড়াই শেষ হয় এক ঘণ্টা ১৩ মিনিটে।

অকল্যান্ডের ম্যাচের পরে প্রণয়- সুনেইয়ামার মুখোমুখি লড়াইয়ের পরিসংখ্যান দাঁড়াল ১-১। শুক্রবার প্রথম গেমে শুরুর ১৩ পয়েন্টে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়। এক সময় টানা ৪ পয়েন্ট তুলে প্রণয়ই এগিয়ে যান ১৭-১৩। এখান থেকেও লড়াই না ছেড়ে জাপানি প্রতিপক্ষ ১৭-১৮ স্কোর করেন। কিন্তু প্রণয়ের শেষের তিন পয়েন্ট জেতা আটকাতে পারেননি সুনেইয়ামা।

দিল্লি দখলের লড়াইলোকসভা নির্বাচন ২০১৯ 

দ্বিতীয় গেমে শুরুতেই প্রণয় ৪-০ এগিয়ে যান। সেখান থেকে নিখুঁত কিছু স্ম্যাশ মেরে ১১-৫ করে ফেলেন। কিন্তু তার পরেই অপ্রত্যাশিত ভাবে ভুল করতে থাকেন। যার পুরো সুবিধা নেন জাপানি তারকা। এবং টানা আট পয়েন্ট জিতে এগিয়ে যান ১৪-১১। প্রণয় তার পরে মাত্র একটা পয়েন্ট জিততে সক্ষম হন এবং ১৫-২১ ফলে গেম হারেন। নির্ণায়ক গেমেও একটা সময় পর্যন্ত কেউ কাউকে এক ইঞ্চি জমি ছাড়েননি। কিন্তু ১৪-১৪ স্কোর থেকে সুনেইয়ামা অসাধারণ খেলে প্রণয়কে ছিটকে দেন। নিউজ়িল্যান্ড ওপেনে খেলেননি পি ভি সিন্ধু। আর সাইনা নেহওয়াল প্রথম রাউন্ডেই হেরে বিদায় নেন। তাও বিশ্বের ২১২ নম্বর খেলোয়াড়ের কাছে। শেষ আশা ছিলেন পুলেল্লা গোপীচন্দ অ্যাকাডেমির ছাত্র প্রণয়। বিশেষ করে, অকল্যান্ডে বৃহস্পতিবার তিনি টমি সুগিয়ার্তোর মতো তারকাকে হারানোয় দারুণ প্রত্যাশা সৃষ্টি হয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সুনেইয়ামা ভারতীয়দের যাবতীয় আশা শেষ করে দিলেন।