আই লিগে চার্চিল ব্রাদার্স বনাম মোহনবাগান ম্যাচের আগে আশ্চর্যজনক ভাবে বদলে গিয়েছে পরিস্থিতি। খেতাবি দৌড় থেকে সনি নর্দেরা ছিটকে যাওয়ায় আগ্রহ হারিয়েছেন সবুজ-মেরুন সমর্থকেরা। ব্যতিক্রমী ছবি লাল-হলুদ শিবিরে। আজ, শনিবার ইস্টবেঙ্গল ফুটবলার, কোচ থেকে সমর্থক, সবাই চার্চিলের বিরুদ্ধে সনিদের জয় দেখতে চান!

আই লিগ টেবলে ১৬ ম্যাচে ২৯ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে চার্চিল। দুই ম্যাচ কম খেলে ২৮ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে ইস্টবেঙ্গল। শনিবার ঘরের মাঠে জিতলেই লিগ টেবলে দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসার সুযোগ রয়েছে উইলিস প্লাজ়াদের। কারণ, এই মুহূর্তে ১৬ ম্যাচে ৩২ পয়েন্ট নিয়ে রিয়াল কাশ্মীর দ্বিতীয় স্থানে থাকলেও গোল পার্থক্যে তারা পিছিয়ে রয়েছে চার্চিলের চেয়ে। তা হলে অস্বস্তি বাড়বে জবি জাস্টিনদের।

প্রশ্ন উঠছে বিধ্বংসী ফর্মে থাকা উইলিস প্লাজ়াকে নিষ্ক্রিয় করে চার্চিলকে কি হারাতে পারবে মোহনবাগান? ম্যাচের চব্বিশ ঘণ্টা আগে সাংবাদিক বৈঠকে সবুজ-মেরুন কোচ খালিদ জামিল বলেছেন, ‘‘চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সম্ভাবনা নেই আমাদের। আমাদের লক্ষ্য ভাল ফল করা।’’ গত মরসুমে খালিদের কোচিংয়েই ইস্টবেঙ্গলে খেলেছিলেন প্লাজ়া। যদিও ব্যর্থতার গ্লানি নিয়ে ক্লাব ছেড়েছিলেন তিনি। কিন্তু চার্চিলের হয়ে এই মরসুমে অবিশ্বাস্য প্রত্যাবর্তন ঘটিয়েছেন প্লাজ়া। ১৭ গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতা হওয়ার দৌড়ে শীর্ষে। যুবভারতীতে প্রথম পর্বে জোড়া গোল করে প্লাজ়া একাই শেষ করে দিয়েছিলেন মোহনবাগানকে। চার্চিল জিতেছিল ৩-০। তখন অবশ্য সবুজ-মেরুনের কোচ ছিলেন শঙ্করলাল চক্রবর্তী। এ বার চার্চিল ঘরের মাঠে খেলবে। তার উপরে লাজং এফসি-র বিরুদ্ধে হারের ধাক্কা কাটিয়ে খেতাবি দৌড়ে ফিরতে মরিয়ে প্লাজ়ারা। সবুজ-মেরুন কোচ বলছেন, ‘‘এখন অনেক পরিস্থিতি বদলে গিয়েছে। প্রচুর পরিশ্রম করেছি। আমাদের হারানো কিন্তু সহজ নয়।’’ চার্চিল কোচ পেতহ‌্ গিগুই বলেছেন, ‘‘আমাদের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সম্ভাবনা একেবারে শেষ হয়ে যায়নি। লাজংয়ের বিরুদ্ধে হারের ফলে পরিস্থিতি একটু কঠিন হয়ে গিয়েছে। তবে আমরা সব সময়ই ইতিবাচক থাকার চেষ্টা করি।’’ 

শনিবার আই লিগে: চার্চিল ব্রাদার্স বনাম মোহনবাগান (বিকেল ৫টা, স্টার স্পোর্টস থ্রি চ্যানেলে)।