• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কোহালি গড়বে অনেক কীর্তি, বলছেন স্মিথ

I see 'incredible' Virat Kohli breaking more records: Steve Smith
প্রশংসা: বিরাট কোহালির রানের খিদে দেখে মুগ্ধ স্টিভ স্মিথ। ফাইল চিত্র

নির্বাসনের শাস্তি কাটিয়ে বাইশ গজে ফেরার পর থেকে দুরন্ত ফর্মে আছেন স্টিভ স্মিথ। অ্যাশেজে অবিশ্বাস্য ধারাবাহিকতা দেখানোর পরে ভারতের বিরুদ্ধে সদ্য সমাপ্ত ওয়ান ডে সিরিজেও সেঞ্চুরি করেছেন অস্ট্রেলিয়ার এই ব্যাটসম্যান। এই বছরেই আবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। যে প্রতিযোগিতায় খেলার জন্য মুখিয়ে আছেন স্মিথ। অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক এও মনে করেন, এ বারের আইপিএল খেলে বিশ্বকাপের জন্য তৈরি হতে পারবেন তিনি।

দেশে ফেরার আগে স্মিথ বলে গিয়েছেন, ‘‘টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে যত বেশি সম্ভব ম্যাচ খেলতে চাই। নিজেদের দেশে এ বার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। তাই বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ পেলে অবশ্যই ভাল লাগবে। ২০১৫ সালে ঘরের মাঠে ৫০ ওভারের বিশ্বকাপ খেলেছি। স্বপ্নের সময় কাটিয়েছি ওই সময়।’’

আইপিএলে তিনি রাজস্থান রয়্যালসের অধিনায়ক। টি-টোয়েন্টির এই মেগা লিগে নিজের ব্যাটিং নিয়ে কি কোনও পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালাবেন? স্মিথ বিশেষ উৎসাহী নন নিজের ব্যাটিংয়ে রদবদল আনতে। তিনি বলছেন, ‘‘ব্যাটিং নিয়ে বেশি পরীক্ষা চালাতে চাই না। হয়তো বোলিংটা একটু বেশি করলাম। কিন্তু নিয়মিত লেগস্পিন করতে গেলে ব্যাটিং থেকে নজরটা একটু সরে যেতে পারে। দেখা যাক, কী হয়।’’  

স্মিথ মানেই উঠে আসবে বিরাট কোহালির প্রসঙ্গ। যে ভাবে দু’জনে ছুটে চলেছেন, তাতে অনেক রেকর্ডই তাঁদের নামের পাশে যে জুড়ে যাবে, তাতে কোনও সন্দেহ নেই। কোহালির কথা উঠতেই স্মিথ বলছেন, ‘‘বিরাট দুর্দান্ত। বিরাটের রেকর্ডই ওর হয়ে কথা বলবে। তিন ধরনের ক্রিকেটেই দারুণ সফল বিরাট। ও অনেক রেকর্ড ভেঙেছে। আমি নিশ্চিত, বিরাট আরও রেকর্ড ভাঙবে।’’ এর পরে স্মিথ আরও বলেন, ‘‘বিরাটের রানের খিদেটা দেখার মতো। ও থামতেই চায় না। তবে আশা করব, অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে থামবে বিরাট।’’

এখানেই শেষ নয়। কোহালি নিয়ে স্মিথ এও বলেছেন, ‘‘অধিনায়ক হিসেবে ভারতকে এক নম্বর টেস্ট দল বানিয়েছে বিরাট। অসাধারণ ফিটনেস। দলের বাকিদের জন্যও একটা মান ঠিক করে দিয়েছে ও। দারুণ ভাবে ভারতকে নেতৃত্ব দেয় বিরাট।’’

শুধু ব্যাটসম্যান হিসেবেই নন, ক্রিকেটীয় স্পিরিটকে তুলে ধরতেও কোহালির জুড়ি নেই। যেটা দেখা গিয়েছে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে। অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ম্যাচে ভারতীয় দর্শকরা যখন স্মিথকে বিদ্রুপ করছিলেন, তখন এগিয়ে এসেছিলেন কোহালি। দর্শকদের থামতে বলেছিলেন ভারত অধিনায়ক। যে কারণে আইসিসি ‘স্পিরিট অব ক্রিকেট’ পুরস্কারও দিয়েছিল কোহালিকে। স্মিথকে সেই ঘটনা নিয়ে প্রশ্ন করলে অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক বলেছেন, ‘‘বিরাট যেটা করেছে, তার জন্য ওর ধন্যবাদ প্রাপ্য। সে দিন ও ওই কাজটা না করলেও পারত। কিন্তু করেছে। যা সত্যিই প্রশংসনীয়।’’

নির্বাসনের শাস্তি উঠে যাওয়ার পরে বলা হচ্ছিল, স্মিথকে হয়তো আবার জাতীয় অধিনায়ক করা হবে। কিন্তু বিশ্বের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যানের কাছে অস্ট্রেলিয়া দলের নেতা এখন টিম পেন। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন