ক্রিকেটে নিরাপত্তা নিশ্ছিদ্র করতে আইসিসি সম্ভবত আসন্ন অ্যাশেজ সিরিজে খেলার মাঠে সংজ্ঞাহীন হওয়া ক্রিকেটারের জন্য পরিবর্ত নেওয়ার নিয়ম চালু করবে। ক্রমশ তা সব ধরনের ক্রিকেটেই চালু করার ভাবনা রয়েছে নিয়ামক সংস্থার।

এই মুহূর্তে লন্ডনে চলছে আইসিসি-র বার্ষিক সভা। সেখানেই এই বিষয় নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গৃহীত হতে পারে বলে খবর। দু’বছর আগে এই বিষয় নিয়ে আইসিসিকে নতুন ভাবে চিন্তা করার প্রস্তাব দিয়েছিলেন ম্যাথু ওয়েড, অ্যারন ফিঞ্চরা। ওয়েডের বক্তব্য ছিল, ‘‘যদি কোনও ক্রিকেটার মাথায় চোট পেয়ে বেরিয়ে যান, তা হলে তো সেই দলকে দশজনে খেলতে হবে। সেটা ক্রিকেটের পক্ষে স্বাস্থ্যকর হবে না।’’ ২০১৪ সালে শেফিল্ড শিল্ডের ম্যাচে মাথায় বলের আঘাতে ফিল হিউজের মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনার পরেই নড়চড়ে বসে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ড। ঘরোয়া ক্রিকেটে পরীক্ষামূলক ভাবে দু’বছরের জন্য কেউ সংজ্ঞাহীন হয়ে মাঠ ছাড়লে তাঁর জায়গায় পরিবর্ত ক্রিকেটার নামানোর নিয়ম চালু করে তারা। পুরুষ এবং মহিলাদের বিগ ব্যাশ লিগেও সেই নিয়ম চালু করা হয়েছে।

 এ বার বছরের শুরুতে অস্ট্রেলিয়া সফরে মাথায় চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন শ্রীলঙ্কার দুই ক্রিকেটার কুশল মেন্ডিস এবং দিমুথ করুণারত্নে। সেই সময় শ্রীলঙ্কা দলের সঙ্গে কোনও চিকিৎসক না থাকায় অস্ট্রেলিয়া দলের মেডিক্যাল স্টাফ তাঁদের শুশ্রূষা করেছিলেন।  হালফিলে এই বিষয়টি নিয়ে প্রচুর চর্চা হচ্ছে। অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার ফিল হিউজের খেলার মাঠে ভয়ঙ্কর মৃত্যুর পর থেকেই এটা নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছিল। একটি সূত্রের দাবি অনুযায়ী, লন্ডনে আইসিসি-র বার্ষিক সভাতেই এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে। সে-ক্ষেত্রে হয়তো আগামী দিনে সব ধরনের ক্রিকেটেই মাথায় চোট পাওয়া ক্রিকেটারের জায়গায় পরিবর্ত ব্যক্তি  ব্যাট ও বল করতে পারবেন।