সেমিফাইনালের রাস্তাটা পরিষ্কার হয়ে গিয়েছিল আগেই। কিন্তু শেষ চারের যুদ্ধটা কাদের সঙ্গে হবে তা নিয়ে ছিল প্রশ্ন। শনিবার লিডসে শ্রীলঙ্কাকে কার্যত উড়িয়ে দিয়ে, সেমিফাইনালের লাইন আপটা ঠিক করে ফেলল ভারত। আগামী মঙ্গলবার ম্যাঞ্চেস্টারে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে সেমিফাইনালে নামছেন কোহালিরা। বৃহস্পতিবার বার্মিংহামে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হবে টুর্নামেন্টের অন্যতম ফেভারিট দল ইংল্যান্ড।

সেমি ফাইনালে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি কারা হবে— এই প্রশ্নটার উত্তর পেতে শনিবার মাঠে নেমেছিল ভারত ও অস্ট্রেলিয়া। হিসাবটা ছিল খুবই সহজ, ভারতকে জিততেই হবে এবং অবশ্যই অস্ট্রেলিয়াকে হারতে হবে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে। মালিঙ্গাদের হারানোর কাজটা খুব সহজেই করে ফেলেছিলেন রোহিত-রাহুলরা। দ্বিতীয় ম্যাচে ডুপ্লেসির দাপটে অস্ট্রেলিয়া হেরে যাওয়ায়, লিগ তালিকায় ১৫ পয়েন্ট নিয়ে এক নম্বরে শেষ করল ভারত। অন্য দিকে, ১৩ পয়েন্ট নিয়ে দু’নম্বরে শেষ করল অস্ট্রেলিয়া।

কোনও সন্দেহ নেই যে ইংল্যান্ড এই টুর্নামেন্টের অন্যতম ফেভারিট দল। মর্গ্যানদের টিমে ১০ নম্বর পর্যন্ত ব্যাটসম্যান। বোলিংয়ে বিভাগেও রয়েছে বহু বৈচিত্র্য। মাঝখানে দু’-একটি ম্যাচে খারাপ খেললেও, তারা কী করতে পারে বোঝা গিয়েছিল ভারত এবং নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে তাদের ম্যাচে। তাই সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডকে এড়িয়ে যেতে চাইছিল ভারত এবং অস্ট্রেলিয়া—এই দুই দলই। শনিবার সেটাই নিশ্চিত করলেন রোহিত-ডুপ্লেসিরা।

আরও পড়ুন: রানমেশিন রোহিত আর ৭-১ স্কোর নিয়ে শেষ চারে নামবেন বিরাটরা​

আরও পড়ুন: রোহিত-রাহুল জুটিও ভয়ঙ্কর, কাপ জয়ের স্বপ্ন আরও কাছে​

তবে নিউজিল্যান্ডও অত্যন্ত কঠিন ঠাঁই। বিশ্বকাপে ভারতের বিরুদ্ধে তাদের ম্যাচটি ভেস্তে গিয়েছিল বৃষ্টিতে। প্রস্তুতি ম্যাচেও বিধ্বংসী বোল্টের সুইংয়ে ধরাশায়ী হয়েছিল কোহালি ব্রিগেড। ফলে নিউজিল্যান্ডকে ভাল করে ‘মাপা’ হয়ে ওঠেনি টিম ইন্ডিয়ার। নিউজিল্যান্ডের হয়ে যে কোনও মুহূর্তে ম্যাচের রং ঘুরিয়ে দেওয়ার ক্ষমতা রাখেন গাপ্টিল। ফর্মের শিখরে রয়েছেন কেন উইলিয়ামসন। ব্যাটে-বলে প্রতি ম্যাচেই উন্নতি করছেন অল রাউন্ডার গ্র্যান্ডহোম। বোলিং বিভাগে বোল্ট-ফার্গুসনরা তো রয়েইছেন। ফলে ম্যাঞ্চেস্টারে লড়াইটা যে কোনওভাবেই সহজ হবে না সহজ হবে না, এ কথা বলাই যায়।

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের YouTube Channel - এ।