কান্না থামছে না জাডেজার, ধাক্কা কাটাতে সময় লাগবে, বলছেন স্ত্রী
“কোনওভাবেই জাডেজাকে শান্ত করা যাচ্ছে না। বারেবারে একই কথা আউড়ে যাচ্ছে, যদি আমি আউট না হতাম, তাহলে আমরা জিতে যেতাম"। বলছেন জাডেজার স্ত্রী রিভাবা।
Jadeja

ধাতস্ত হতে আরও সময় লাগবে জাডেজার। ছবি: এএফপি।

শুরু হয়ে গেছে বিশ্বকাপ ফাইনাল। মুখোমুখি ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ড। কিন্তু অন্যদিকে কিছুতেই যেন কান্না থামাতে পারছেন না স্যর রবীন্দ্র জাডেজা। বারবার একই কথা আউড়ে চলেছেন, ‘‘যদি আউট না হতাম তা হলে আমরা জিতে যেতাম।’’এমনটাই জানালেন স্যর জাডেজার স্ত্রী রিভাবা জাডেজা।

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে সেমিফাইনালে দল যখন পরপর উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়েছিল তখন ধোনির সঙ্গে জুটি বেঁধে মাত্র ৫৯ বলে ৭৭ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন। যার ফলে এক সময় যখন দর্শকরা ভেবেই নিয়েছিলেন যে ভারত ম্যাচ হেরে গিয়েছে। সেখান থেকে জাডেজার ব্যাটিং দেখার পর মনে হচ্ছিল একা হাতেই ম্যাচ জিতিয়ে দেবেন। কিন্তু সেটা আর সম্ভব হয়নি। ট্রেন্ট বোল্টের বলে নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের হাতে ক্যাচ তোলাই কাল হল ভারতের।

এই কারণেই তাঁর দুর্দান্ত ব্যাটিং দেখে যখন তাঁর প্রশংসায় পঞ্চমুখ ক্রিকেট বিশেষজ্ঞেরা সেই সময়ই সেমিফাইনালে হারের জন্য নিজেকেই দোষী বলে মনে করছেন তিনি।

আরও পড়ুন: পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ১৪৮ না শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ১৮৩, ধোনির কেরিয়ারের সেরা ওয়ান ডে ইনিংস কোনটা

জাডেজার স্ত্রী রিভাবা বলছিলেন, “কোনওভাবেই জাডেজাকে শান্ত করা যাচ্ছে না। বারেবারে একই কথা আউড়ে যাচ্ছে, যদি আমি আউট না হতাম, তাহলে আমরা জিতে যেতাম। যদি আপনি এতটা কাছে এসে একটা ম্যাচ হারেন, তাহলে এটা সত্যিই বেদনাদায়ক। ওর ঠিক হতে আরও কিছুটা সময় লাগবে।”

জাডেজার স্ত্রী আরও জানালেন, “দলের যখনই প্রয়োজন হয়েছে, জাডেজা তখনই পারফর্ম করেছে,সে উইকেট নিয়েই হোক কিংবা ব্যাট হাতে স্কোরবোর্ডে রান তোলা। ২০১৩ সালে যখন ভারত আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জিতেছিল, তখন জাডেজাই অলরাউন্ড পারফরম্যান্সের জন্য ম্যাচের সেরা হয়েছিল।”

আরও পড়ুন: বিরাট নয়, রোহিতকে ভারতের অধিনায়ক চান প্রাক্তন ভারতীয় ওপেনার

সেমিফাইনালে হারের পর জাডেজা নিজের টুইটার হ্যান্ডলে ভারতীয় সমর্থকদের উদ্দেশে লিখেছিলেন,তাঁরলড়ে যাওয়ার মানসিকতা আসে প্রধানত সমর্থকদের সমর্থন ও ভালবাসার জন্য। এর জন্য তিনি তাঁর শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্তও লড়ে যেতে রাজি।

দেখুন সেই পোস্ট।

স্যর জাডেজা ড্রেসিংরুমে মাতিয়ে রাখার জন্য খ্যাত। দলের হার হোক বা জিত ড্রেসিং রুমে দলের মেজাজ ঠিক করতে তাঁর জুড়ি মেলা ভার। কিন্তু সেমিফাইনালে একটি হারের জন্য জাডেজার এই অবস্থা সত্যি মেনে নিতে পারছেন না সতীর্থরাও।

ম্যাচের
Live
স্কোর