• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

নিউজ়িল্যান্ডের কাছে পরাজয়ে ভয়ের কিছু দেখছেন না সচিন

Sachin
অতিথি: রবিবার মুম্বই টি-টোয়েন্টি লিগ ফাইনালে টস করছেন সচিন। রয়েছেন পৃথ্বী শ। ওয়াংখেড়েতে। টুইটার

বিশ্বকাপ খেলতে ইংল্যান্ডে গিয়েই প্রস্তুতি ম্যাচে নিউজ়িল্যান্ডের কাছে হার। কিন্তু তাতে আশঙ্কিত হওয়ার কোনও কারণ দেখছেন না সচিন তেন্ডুলকর। প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক জানাচ্ছেন, ইংল্যান্ডের আবহাওয়া, পিচ ও পরিবেশ বুঝতে সাহায্য করবে এই প্রস্তুতি ম্যাচগুলো। যা কাজে লাগবে বিশ্বকাপ শুরু হলে।

শনিবার ওভালে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে নিউজ়িল্যান্ডের কাছে ছয় উইকেটে হেরেছে ভারত। শুরুতে ব্যাট করে ১৭৯ রানে আউট হয়ে গিয়েছিল ভারত। জবাবে ৩৭.১ ওভারেই জয়ের রান তুলে নেয় নিউজ়িল্যান্ড। রবিবার সেই প্রসঙ্গেই সচিন বলেন, ‘‘প্রতিটি ম্যাচের পরে ভারতীয় দল নিয়ে বিচার করতে বসি না। এই ধরনের বড় প্রতিযোগিতায় এ রকম ঘটনা ঘটতে পারেই। তা ছাড়া এটা ছিল একটি প্রস্তুতি ম্যাচ। আসল প্রতিযোগিতা তো এখনও শুরুই হয়নি।’’ সঙ্গে যোগ করেন, ‘‘একটা প্রস্তুতি ম্যাচেই উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই। একটা-দু’টো ম্যাচে কিছু ভুলভ্রান্তি হতেই পারে। তা ছাড়া, এই ধরনের প্রস্তুতি ম্যাচ পরিবেশ, পরিস্থিতির সঙ্গে খাপ খাওয়াতে সাহায্য করবে ভারতীয় দলকে। ম্যাচে কী কম্বিনেশন হবে বা পিচ নিয়ে নিজেদের ধারণা তৈরি হওয়ার জায়গা তো এই প্রস্তুতি ম্যাচ।’’

ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহালি এ বারের আইপিএলে ধারাবাহিক ভাবে বড় রান পাননি। সে প্রসঙ্গ নিয়ে সচিন বলছেন, ‘‘ভারতের হয়ে আন্তর্জাতিক ম্যাচে খেলা আর আইপিএলে মাঠে নামা এক ব্যাপার নয়। দু’টো ভিন্ন ঘরানা। একে তো ফর্ম্যাট আলাদা। তার উপরে দলে বিদেশি ক্রিকেটার থাকে আইপিএলে। সেখানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ভারতীয়দের নিয়েই দল গঠিন হয়। কাজেই দু’টোর কোনও তুল না আসে না। আর দেশের জার্সিতে খেলতে নামলে বিরাটের দায়িত্ববোধ আরও বেড়ে যায়।’’

বিরাটের পাশাপাশি, সচিন জানিয়ে দিয়েছেন, ভারতীয় দলে মহেন্দ্র সিংহ ধোনির পারফরম্যান্স ও অভিজ্ঞতা ভারতীয় দলের সাফল্য পাওয়ার পিছনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। সচিনের কথায়, ‘‘ধোনির অভিজ্ঞতা ও উইকেটের পিছনে দাঁড়িয়ে পরামর্শ দেওয়া ভারতীয় দলের সফল হওয়ার পিছনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। কারণ, উইকেটের পিছনে দাঁড়িয়ে গোটা মাঠ দেখতে পায় ও। ফলে পিচের অবস্থা বা বল পড়ে থমকে আসছে কি না এগুলো অন্যদের চেয়ে আগে বুঝতে পারে ধোনি। যা বোলার ও বিরাটের সঙ্গে আলোচনা করলে সেটা দলের কাছে একটা প্রাপ্তি। ফলে অনেক পরিকল্পনাই ম্যাচের মধ্যে সফল হতে পারে।’’

বিশ্বকাপে ভারতের প্রথম তিন ব্যাটসম্যান শিখর ধওয়ন, রোহিত শর্মার প্রশংসা করেও প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক বলছেন, ‘‘প্রথম তিন ব্যাটসম্যানের উপর ভারতীয় দল বেশি নির্ভরশীল, তা মনে করি না। কারণ, এর বাইরেও অনেকে রয়েছে, যারা ব্যক্তিগত দক্ষতায় ম্যাচে শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণ দিতে পারে।’’

সচিন ইতিমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছেন, এই বিশ্বকাপে অবাক করে দেওয়ার মতো পারফরম্যান্স দেখাতে পারে আফগানিস্তান। শুক্রবার ব্রিস্টলে আফগানিস্তান প্রস্তুতি ম্যাচে হারিয়েছেন প্রাক্তন বিশ্বচ্যাম্পিয়ন পাকিস্তানকে। যে প্রসঙ্গে সচিন বলছেন, ‘‘আফগানিস্তান যে এ বার বিশ্বকাপে চমক দেবে, তা আগেই বলেছি। কারণ আফগানদের দলে রয়েছে বিশ্বের সেরা স্পিন আক্রমণ।’’

পাশাপাশি, বিশ্বকাপের সময়ে ইংল্যান্ডের পিচের পরিস্থিতি কী হবে, সে ব্যাপারেও মন্তব্য করেন সচিন। তাঁর কথায়, ‘‘শনিবার ভারত বনাম নিউজ়িল্যান্ডের ম্যাচে অন্য রকমের পিচ ছিল। আবহাওয়া বোলারদের সহায়ক ছিল। তার উপর পিচে ঘাস ছিল। কিন্তু খেলা গড়াতেই আবহাওয়া বদলে গিয়ে পিচ নিয়ে ব্যাটসম্যানদের আর কোনও সমস্যা হয়নি। আমার ধারণা বিশ্বকাপের সময় পিচের চরিত্র বদলে যাবে। নিষ্প্রাণ পিচে সেখানে সুবিধা 

পাবেন স্পিনাররাই।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন