রায়ডুর সঙ্গে যা হয়েছে হতাশাজনক, গুরুত্ব দেওয়া হয়নি মিডল অর্ডারে, ম্যানেজমেন্টের সমালোচনায় যুবরাজ
"যদি তুমি চাও যে কেউ চার নম্বরে ভালো পারফর্ম করুক, তা হলে তাঁকে ধরে রাখতে হবে। তুমি কাউকে এটার জন্য বসিয়ে দিতে পার না যদি সে প্রত্যেকটা ম্যাচে ভালো পারফর্ম না করে।” যুবরাজ
Yuvi

মিডল অর্ডারের খামতি নিয়ে টিম ম্যানেজমেন্টকে এক হাত নিলেন যুবরাজ। ছবি: পিটিআই

এবার ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টকে এক হাত নিলেন ভারতের প্রাক্তন তারকা ক্রিকেটার যুবরাজ সিং। আম্বাতি রায়ডুকে না নিয়ে, আগে কোনও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট না খেলা মায়াঙ্ক আগরওয়ালকে দলে নেওয়া নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করার সঙ্গে সঙ্গেই দলে চার নম্বর জায়গাটি নিয়ে নির্বাচক মণ্ডলীর গুরুত্ব না দেওয়াকে নিয়ে সরব হলেন তিনি।

সেমিফাইনালে ভারতের টপ অর্ডারের বিপর্যয়ের পর ভারতের মিডল অর্ডারও সমর্থকদের আশা পূরণ করতে ব্যর্থ হয়েছে। যার ফলে ভারত ১৮ রানে হেরে যায়। যদি রবীন্দ্র জাডেজা ও ধোনি শেষে এসে ১১৬ রানের পার্টনারশিপ না করত তা হলে ভারতকে আরও অনেক বড় রানে হারতে হত।

এক সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টের সমালোচনা করে যুবরাজ সিংহ বলেন, নির্বাচক মণ্ডলী ও টিম ম্যানেজমেন্ট ভারতের মিডল অর্ডারের সমস্যার সমধানে তেমন গুরুত্বই দেয়নি। এই প্রসঙ্গেই তিনি জানিয়েছেন, আম্বাতি রায়ডুর সঙ্গে খুব খারাপ ব্যবহার করা হয়েছে। তাঁকে না নিয়ে টিম সিলেক্টাররা আনক্যাপ খেলোয়াড় মায়াঙ্ক আগরওয়ালকে নেওয়ায় অভিমানে রায়ডু অবসর নিয়ে নিল।

আরও পড়ুন: সুপারম্যান স্টোকসে মুগ্ধ, উৎসব আঁতুড়ঘরেও

তিনি আরও বলেন, “তারা(নির্বাচক মণ্ডলী) রায়ডুর সঙ্গে যা করেছে তা খুবই হতাশাজনক। বিশ্বকাপে দল ঘোষণার সময় ও আলোচনার মধ্যে ছিল। নিউজিল্যান্ড সফরের সময় ও রানও পেয়েছিল। কিন্তু শেষ তিন, চারটে ম্যাচে রান না পাওয়ায় ওকে বসিয়ে দেওয়া হল।

যদি ব্যাটিং অর্ডারের চার নম্বর গুরুত্বপূর্ণ হয়, যদি তুমি চাও যে কেউ ওই জায়গায় ভালো পারফর্ম করুক, তা হলে তাঁকে ধরে রাখতে হবে। তুমি কাউকে এটার জন্য বসিয়ে দিতে পার না যদি সে প্রত্যেকটা ম্যাচে ভালো পারফর্ম না করে।”

আরও পড়ুন: মহাকাব্যিক ফাইনালে ঐতিহাসিক ভুলে তোলপাড় ক্রিকেট

এক কালে ভারতের সেরা চার নম্বর ব্যাটসম্যান ও ২০১১ বিশ্বকাপের ম্যান অফ দ্য টুর্নামেন্ট যুবরাজ সিংহের করা এই সমালোচনা ইতিমধ্যেই সাড়া ফেলেছে সোশাল মিডিয়ায়। আইসিসিও তাদের টুইটার হ্যান্ডলে যুবরাজের এই সাক্ষাৎকারকে পোস্ট করেছে। যা ইতিমধ্যেই ভাইরাল।

ম্যাচের
Live
স্কোর