ত্রিদেশীয় আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন ভারত। বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় ম্যাচে সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিসের বিরুদ্ধে এগিয়ে গিয়েও জয় হাতছাড়া করলেন সুব্রত পাল-রা। তাতেও অবশ্যও ট্রফি জিততে সমস্যা হয়নি ভারতীয় দলের।  

বৃহস্পতিবার মুম্বইয়ের আন্ধেরি স্পোর্টস কমপ্লেক্সে সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিসের বিরুদ্ধে জেজে লালপেখলুয়া-র সঙ্গে শুরু করেন  আগের ম্যাচে পরিবর্ত হিসেবে নেমে গোল করা বলবন্ত সিংহ। আর রবিন সিংহ নামেন পরিবর্ত হিসেবে। তবে ভারতে এগিয়ে দেন জ্যাকিচন্দ সিংহ। ৩৯ মিনিটে রওলিন বর্জেসের পাস থেকে গোল করেন তিনি। কিন্তু ৭১ মিনিটে সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিসের অ্যামরন গাউন গোল করে ভারতের জয়ের পথে কাঁটা ছড়িয়ে দেন।

আরও পড়ুন:  জাতীয় সঙ্গীত বিতর্ক: পক্ষে মিলখা, বিপক্ষে চুনী

প্রথম ম্যাচে মরিশাসকে হারিয়ে ত্রিদেশীয় আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে অভিযান শুরু করেছিল ভারত। এ দিন তাই ড্র করলেও চ্যাম্পিয়ন হওয়া আটকায়নি ভারতের। কারণ, সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্রথম ম্যাচে ড্র করেছিল মরিশাসের বিরুদ্ধে। তবে গোল করেও মন খারাপ জ্যাকিচন্দের। ম্যাচের পর তিনি বলেছেন, ‘‘গোল করেছি ঠিকই। কিন্তু দল জিততে না পারায় হতাশ।’’ প্রথম ম্যাচে পিছিয়ে যাওয়া ভারত ঘুরে দাঁড়িয়েছিল রবিনের গোলে। এ দিন অবশ্য বেশ কয়েকটি সহজ সুযোগ নষ্ট করেন তিনি। হতাশ রবিন বলেছেন, ‘‘নিশ্চিত গোলের সুযোগ নষ্ট করেছি। পরের ম্যাচে এই ভুলের পুনরাবৃত্তি আর করতে চাই না।’’ অধিনায়ক সন্দেশ ঝিঙ্গানের মতে, গোলের একাধিক সুযোগ নষ্ট করার জন্যই জয় হাতছাড়া হয়েছে ভারতের। তবে ডিফেন্ডার প্রীতম কোটালের কাছে এই ম্যাচ অতীত। বৃহস্পতিবার রাত থেকেই তিনি এশিয়ান কাপের যোগ্যতা অর্জন পর্বে ৫ সেপ্টেম্বরের প্রতিপক্ষ ম্যাকাও-কে নিয়ে ভাবতে শুরু করে দিয়েছেন। প্রীতম বলেছেন, ‘‘জিতলে ভাল লাগত। কিন্তু হতাশ হওয়ার কিছু নেই। এ বার আমাদের ম্যাকাওয়ের বিরুদ্ধে ম্যাচ। আমরা এখন ম্যাকাওকে নিয়েই ভাবতে চাই।’’