ফের বিধ্বংসী জশপ্রীত বুমরা। তৃতীয় টেস্টের শেষ ইনিংসে নিয়েছিলেন পাঁচ উইকেট। সেই ছন্দেই শুরু করলেন চতুর্থ টেস্ট।

বুমরার দুই উইকেটের দাপটেই প্রথম দিন মধ্যাহ্নভোজের সময় চার উইকেট হারিয়ে ৫৭ রান তুলেছে ইংল্যান্ড। বুমরা ফিরিয়েছেন ওপেনার কিটন জেনিংস ও চার নম্বরে নামা জনি বেয়ারস্টোকে। ইশান্ত শর্মা নিয়েছেন তিন নম্বরে নামা ইংল্যান্ড অধিনায়ক জো রুটের উইকেট। এই উইকেট নিয়ে টেস্টে ২৫০ শিকারের মাইলস্টোনে পৌঁছলেন তিনি। আর হার্দিক পান্ডিয়া নিয়েছেন অ্যালিস্টেয়ার কুকের উইকেট। লাঞ্চের ঠিক আগে মহম্মদ শামির বলে উইকেটরক্ষক ঋযভ পন্থ ফেললেন জোস বাটলারের কঠিন ক্যাচ। না হলে ইংল্যান্ডকে আরও কোণঠাসা দেখাত। তবে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে এমনিতেও ইংল্যান্ড বেশ চাপে।

এখনও পর্যন্ত ৩৯ টেস্টের মধ্যে ১৮টিতে টস জিতেছেন বিরাট কোহালি। টস হেরেছেন ২১টিতে। চলতি টেস্ট সিরিজে একবারও টস জেতেননি তিনি। সেই ধারাই অক্ষুণ্ণ থাকল সাউদাম্পটনে সিরিজের চতুর্থ টেস্টেও। টস হারলেন বিরাট। আর টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নিলেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক জো রুট

টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতেই চেয়েছিল দুই দল। টস জিতে সেজন্যই রুটের মুখে দেখা গেল চওড়া হাসি। বললেন, প্রথমে ব্যাট করার সুবিধা কাজে লাগাতে চাইছেন তিনি। তাঁর দলে ঘটেছে দুটো বদল। মইন আলি ও স্যাম কারেন এসেছেন ক্রিস ওকস ও অলিভার পোপ। ফলে, ইংল্যান্ড নামছে দুই স্পিনার নিয়ে।

ভারত আবার বিরাটের নেতৃত্বে এই টেস্টেই প্রথমবার অপরিবর্তিত রাখল দল। কোহালি বললেন, কন্ডিশন যা, তাতে দলে বদলের দরকার ছিল না। তাছাড়া রবিচন্দ্রন অশ্বিনও সুস্থ। উইকেট হার্ড, নতুন বলে তা কাজে লাগাতে চাইছেন ভারত অধিনায়ক। ট্রেন্টব্রিজে আগের টেস্টেই ভারতীয় পেসাররা নিয়েছিলেন ১৯ উইকেট। ফলে, ঘাস থাকা বাইশ গজে তাদের ওপর থাকছে প্রত্যাশাও। পাঁচ টেস্টের সিরিজে আপাতত ১-২ পিছিয়ে ভারত। সিরিজ জিততে হলে চতুর্থ টেস্টে ২-২ করতেই হবে টিম ইন্ডিয়াকে।

আরও পড়ুন: এশিয়ান গেমসে দুটো রুপো জিতেও কেরিয়ার নিয়ে আশঙ্কায় দ্যুতি

আরও পড়ুন: গ্যালারিতে থাকছে মুখোশ, ফুটবলে অভিষেকের আগে নার্ভাস বোল্ট