বিশ্বকাপ শেষ। ‘টিম ইন্ডিয়া’র জন্য নতুন কোচ খোঁজার প্রক্রিয়া শুরু করে দিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড। ভারতীয় বোর্ড সূত্রে খবর, নতুন কোচ নির্বাচন প্রক্রিয়ায় বিরাট কোহালির বক্তব্য শোনা হবে না।

২০১৭ সালের আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির পরের দিনই ভারতের কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন দেশের অন্যতম সেরা ম্যাচ উইনার অনিল কুম্বলে। তার পরেই রবি শাস্ত্রীকে নতুন কোচ হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছিল। শাস্ত্রীকে কোচ করার পিছনে কোহালির ভূমিকা ছিল। এ বার হয়তো ছবিটা বদলাতে চলেছে।

ভারতের হেড কোচের পদে আবেদন করতে হলে টেস্ট খেলিয়ে কোনও দেশকে কমপক্ষে দু’ বছর কোচিং করানোর অভিজ্ঞতা থাকতে হবে প্রার্থীকে। অ্যাসোসিয়েট কোনও দেশ অথবা এ দল বা আইপিএল দলকে তিন বছর কোচিং করানোর অভিজ্ঞতাসম্পন্ন প্রার্থীও ‘টিম ইন্ডিয়া’র হেড কোচের জন্য আবেদন করতে পারেন। বোর্ডের আরও শর্ত, প্রার্থীকে ৩০টি টেস্ট ম্যাচ অথবা ৫০টি ওয়ানডে খেলার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে এবং তাঁর বয়স ৬০-এর কম হতে হবে। ভারতীয় বোর্ড জানিয়ে দিয়েছে, বিরাট কোহালিদের হেড কোচ হিসেবে কাজ চালিয়ে যেতে হলে রবি শাস্ত্রী-কে নতুন করে আর আবেদন করতে হবে না। ৩০ জুলাই বিকেল পাঁচটার মধ্যে সব পদের জন্য আবেদন করতে হবে।

আরও পড়ুন: উইলিয়ামসনে মুগ্ধ শাস্ত্রীর টুইট, তুমি অসাধারণ

আরও পড়ুন: মর্গ্যানের সাফল্যে তৃপ্ত ডিভিলিয়ার্স

হেড কোচ নিয়োগের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে তিন জনকে নিয়ে গঠিত ক্রিকেট অ্যাডভাইসরি কমিটি। এই কমিটির প্রধান বিশ্বজয়ী অধিনায়ক কপিল দেব। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বোর্ড কর্তা সর্বভারতীয় স্তরের একটি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘‘এর আগে প্রাক্তন কোচ অনিল কুম্বলের সঙ্গে তাঁর সমস্যা অথবা দলের সমস্যার কথা জানিয়েছিল কোহলি। কিন্তু, নতুন কোচ নির্বাচন প্রক্রিয়ায়, কে কোচ হবেন, তা নিয়ে কিছুই বলতে পারবে না কোহালি। এ বার কোচ নির্বাচন প্রক্রিয়ায় কপিল দেব রয়েছেন। কোহালির কথা শুনবেন না কপিল।’’

শাস্ত্রীর সঙ্গে ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত চুক্তি ছিল। বিশ্বকাপ সেমিফাইনালের পরে শাস্ত্রী এবং তাঁর কোচিং স্টাফের মেয়াদ আরও ৪৫ দিন বাড়ানো হয়েছে। শাস্ত্রী দল নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ যাচ্ছেন। ৩ অগস্ট থেকে শুরু হবে ক্যারিবিয়ান সফর। ৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর। তার পরেই ঘরের মাঠে ১২ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সিরিজ। তার আগেই নতুন কোচ বেছে নেওয়া হবে। প্রোটিয়াদের বিরুদ্ধে সিরিজেই নতুন কোচের হাতে দলের রিমোট কন্ট্রোল তুলে দেওয়া হবে।