ভারতীয় ক্রিকেট দলে হার্দিক পাণ্ড্যর মতো প্রতিভাবান ক্রিকেটার আর কেউ নেই বলে মনে করেন প্রাক্তন তারকা বীরেন্দ্র সহবাগ। একধাপ এগিয়ে তাঁর আরও দাবি, এই মুহূর্তে ভারতে হার্দিকের বিকল্পও খুঁজে পাওয়া যাবে না।

মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের এ বার চতুর্থ আইপিএল খেতাব জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল হার্দিকের। এক টিভি অনুষ্ঠানে মহিলাদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে নির্বাসিত হওয়ার পরেও দুরন্ত প্রত্যাবর্তন ঘটিয়েছেন ভডোদরার এই অলরাউন্ডার। ব্যাটে ১৫ ইনিংসে ৪০২ রান। স্ট্রাইক রেট ১৯১.৪২। সর্বোচ্চ ৯১। 

সহবাগ সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘‘হার্দিকের যা প্রতিভা তাতে অন্য কেউ ওর ধারাকেছেও আসবে না। ব্যাট, বল দু’বিভাগের কথাই বলছি। বোর্ড তো থ্রি-ডাইমেশনাল ক্রিকেটারদের কথাও বলেছিল। কিন্তু হার্দিকের প্রতিভার কাছাকাছিও কেউ থাকলে ওকে দলে ফেরানোই হত না।’’ আসন্ন বিশ্বকাপেও ভারতের অন্যতম ভরসার জায়গা হার্দিক। তাঁকে এবং যশপ্রীত বুমরাকে নিয়ে ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপেও ভাল ফলের ব্যাপারে প্রবল আশাবাদী সহবাগের মতো এ দেশের অসংখ্য ক্রিকেটপ্রেমী।

এ দিকে, ভারতীয় দলের আর এক প্রাক্তন ওপেনার গৌতম গম্ভীর মনে করছেন, বিশ্বকাপে একজন কম জোরে বোলার নিয়ে বিরাট কোহালিরা খেলতে যাচ্ছেন। সংবাদসংস্থা পিটিআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে গম্ভীর বলেছেন, ‘‘আমার মনে হয়েছে, এই দলে আরও একজন জোরে বোলারের প্রয়োজন ছিল। যশপ্রীত বুমরা, মহম্মদ শামি এবং ভুবনেশ্বর কুমারকে সাহায্য করার জন্য আরও একজন জোরে বোলার রাখা দরকার ছিল এই দলে।’’ সেখানেই না থেমে গম্ভীর আরও বলেছেন, ‘‘অনেকেই হয়তো মনে করছেন দলে দুই অলরাউন্ডার হার্দিক পাণ্ড্য এবং বিজয় শঙ্কর থাকায় তারাও প্রয়োজনে বল করে দিতে পারবে। কিন্তু সেই ভাবনা খুব একটা ফলপ্রসূ হবে বলে আমি মনে করি না। বিশ্বকাপের মতো প্রতিযোগিতায় আরও নিখুঁত দলীয় ভারসাম্যের দরকার পড়ে।’’ 

যদিও গম্ভীর মনে করছেন, এ বার যে ফর্ম্যাটে বিশ্বকাপ খেলা হবে তাতে সমস্ত দলেরই খুব সুবিধা হবে। তিনি বলেছেন, ‘‘যে হেতু সমস্ত দলগুলি একে অপরের বিরুদ্ধে খেলবে, তার ফলে কোন দল সমস্ত দিক থেকে সেরা তা খুব সহজেই বোঝা যাবে। আমি মনে করি, ভবিষ্যতেও আইসিসির এই ফর্ম্যাটই ধরে রাখা দরকার।’’ প্রাক্তন ভারতীয় ওপেনার জানিয়েছেন, ভারত ছাড়াও এ বারের বিশ্বকাপে তাঁর নজর থাকবে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড এবং নিউজ়িল্যান্ডের দিকে। তিনি বলেছেন, ‘‘অস্ট্রেলিয়ার বোলিং এ বার খুবই শক্তিশালী এবং গোছানো। সাম্প্রতিক সময়ে ইংল্যান্ডও দারুণ ক্রিকেট খেলছে। নিউজ়িল্যান্ডও আকর্ষক ক্রিকেট উপহার দেবে।’’