এতদিন হেলিকপ্টার শটকে মহেন্দ্র সিংহ ধোনির নিজস্ব উদ্ভাবন বলা হচ্ছিল। এ বার সেই দলে নাম লিখিয়েছেন হার্দিক পাণ্ড্য। এমনকি কিছু নতুনত্বও এনেছেন শটে। ভারতীয় দলের অলরাউন্ডার দাবি করছেন, ধোনি স্বয়ং তাঁর শটের প্রশংসা করেছেন।

এ বারের আইপিএলে ভাল ছন্দে আছেন হার্দিক। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে ৯ ম্যাচে তাঁর রান ২১৮। স্ট্রাইক রেট ১৯৪.৬৪। বৃহস্পতিবার রাতে দিল্লি ক্যাপিটালসের কাগিসো রাবাডার বোলিংয়ে তিনি হেলিকপ্টার শট মেরেছেন। তাঁর ১৫ বলে ৩২ রানের ইনিংস মুম্বইয়ের জয়ও সহজ করেছে। হার্দিকের ইনিংসে ছিল দু’টি বাউন্ডারি ও তিনটি ছক্কা। আর ২০ নম্বর ওভারে রাবাডার দ্বিতীয় বলেই হেলিকপ্টার শটে তিনি ছয় মারেন লং অন ও মিড উইকেটের মাঝখান দিয়ে। 

হার্দিক বলেছেন, ‘‘জীবনে কখনও ভাবিনি ম্যাচে হেলিকপ্টার শট মারব। তবে নেটে অনুশীলন করতাম। একবার ধোনির ঘরে ঢুকে ওর কাছে জানতে চাইলাম, আমার হেলিকপ্টার শট ওর ভাল লেগেছে কি না। ও বলল, ভালই মারছি।’’ বৃহস্পতিবার ম্যাচের সেরা হয়েছেন হার্দিকই। বছর পঁচিশের অলরাউন্ডার মনে করছেন, এই মুহূর্তে তিনি বেশ ভাল ব্যাটে বল মারছেন। ‘‘আমি তো নিজেই নিজেকে প্রশ্ন করছিলাম যে, আগে কখনও আমার এত ভাল ব্যাটে-বলে হয়েছে কি না। আসলে এই সময়টায় নেটে প্রচুর খেটেছি। মনে হয়, এ বার তার ফলও পাচ্ছি,’’ বলেছেন হার্দিক।

হার্দিক জানাচ্ছেন, তিনি এখন যা কিছু করছেন তা পুরোপুরি ক্রিকেটের ব্যাকরণ মেনে। বলেছেন, ‘‘ক্রিকেটের মূল ব্যাপারগুলে মেনে চলছি। বোলার বল করার সময় নড়াচড়া করছি না। মারার বল পেলে সুযোগ নেওয়ার চেষ্টা করছি। তা ছাড়া এখন আমার পক্ষে যতটা সম্ভব নিজের মাথা খাটিয়ে ক্রিকেট খেলছি। এই মরসুমে দেখছি উইকেটের চরিত্রও ভাল বুঝছি। এখনও আমাদের হাতে পাঁচটা ম্যাচ আছে। তার পরে প্লে-অফও পাব। আশা করছি এ ভাবেই মরসুমটা খেলে যেতে পারব।’’ 

মুম্বই ইন্ডিয়ান্সে খেলেন হার্দিকের দাদা ক্রুণালও। প্রসঙ্গত, জনপ্রিয় টিভি অনুষ্ঠানে মহিলাদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করায় হার্দিককে সাময়িক ভাবে ক্রিকেটের মূল স্রোত থেকে ছিটকে যেতে হয়। ক্রুণাল মনে করছেন, এই ঘটনা তাঁর ভাইয়ের কাছে ‘শাপে বর’ হয়েছে। বলেছেন, ‘‘চোট এবং অন্য কারণে ক্রিকেট থেকে দূরে চলে যাওয়ার সময়টায় ও নিজের ফিটনেস নিয়ে প্রচুর পরিশ্রম করেছে। তবে একটা কথা বলতে পারি, যে কোনও পরিস্থিতিতে ওর কাছে অগ্রাধিকার পেয়েছে ক্রিকেটটাই।’’ সঙ্গে যোগ করেছেন, ‘‘সত্যি কথা বললে, ওর মতো ক্রিকেট নিবেদিতপ্রাণ ছেলে খুবই কম আছে। সব সময়েই চেষ্টা করে আরও উন্নতি করার। আমার মনে হয় এটা করতে পারলেই একজন ক্রিকেটার ধারবাহিক ভাবে ভাল খেলতে বাধ্য। হার্দিকের ক্ষেত্রেও ঠিক সেটাই হয়েছে।’’

ভারতীয় বিশ্বকাপ দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হার্দিকের ব্যাটিংয়ের ধরনে সাম্প্রতিক কিছু পরিবর্তন নিয়ে ক্রুণালের মন্তব্য, ‘‘প্রথম দিকে ও স্পিনারদের বিরুদ্ধেই বড় শট মারতে ভালবাসত। কিন্তু এখন পেসারদেরও মারছে। এই জায়গাটা নিয়ে ও প্রচুর কাজও করেছে। যার ফল এখন ভাল রকম পাচ্ছে বলে আমি মনে করি।’’ তাঁর আরও মন্তব্য, ‘‘আমিও ওর কাছ থেকে অনেক কিছু শিখছি। বিশেষ করে হাল না ছাড়ার মানসিকতাটা।’’

শনিবারই হার্দিকদের মুম্বই ইন্ডিয়ান্স মুখোমুখি হচ্ছে রাজস্থান রয়্যালসের। দু’টি জয় ও ছ’টি হারের সৌজন্যে দেওয়াল পিঠ ঠেকে আছে রাজস্থানের। পয়েন্ট টেবলেও তার একেবারে নীচের দিকে রয়েছে। তবে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে প্রথম লেগে কিন্তু অ্যাওয়ে ম্যাচ জিতেছিল রাজস্থানই। শনিবার তাদের নিজেদের মাঠ সোয়াই মান সিংহ স্টেডিয়ামে খেলা। যদিও নিজেদের মাঠে এ বার তারা তিনটি ম্যাচ হেরেছে। জিতেছে শুধু বিরাট কোহালির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের বিরুদ্ধে।

আইপিএলে আজ: রাজস্থান রয়্যালস বনাম মুম্বই ইন্ডিয়ান্স, বিকেল ৪.০০। স্টার স্পোর্টস ওয়ান চ্যানেলে।