সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে বুধবার মাঠে নামার আগেই বড় ধাক্কা খায় চেন্নাই সুপার কিংস। খেলা শুরুর আগে জানা যায়, এই ম্যাচে খেলবেন না মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। কারণ কোমরের চোট। ধোনির যে চোট আছে, ইডেনে কেকেআর-চেন্নাই ম্যাচের পরে সে খবর প্রথম প্রকাশিত হয়েছিল আনন্দবাজারেই। 

২০১০ সালের পরে এই প্রথম ধোনি ছাড়া আর কেউ চেন্নাই সুপার কিংসকে নেতৃত্ব দিলেন। ধোনি না থাকায় বুধবার দলকে নেতৃত্ব দেন সুরেশ রায়না। তবে ধোনি উপ্পলে হাজির ছিলেন। হালকা ফুটবল খেলতেও দেখা যায় তাঁকে। ম্যাচ শুরুর আগে রবীন্দ্র জাডেজাকে আলাদা করে ডেকে পরামর্শও দেন ধোনি। বুঝিয়ে দেন, কোথায় বল করতে হবে। 

ধোনির চোট নিয়ে অবশ্য শুধু চেন্নাই সমর্থদকের নয়, ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীদেরও উদ্বেগ থাকবে। সামনের মাসের শেষেই শুরু হয়ে যাচ্ছে বিশ্বকাপ। এই অবস্থায় ধোনির চোট কতটা গুরুতর, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। রায়না অবশ্য জানিয়েছেন, ধোনির চোট গুরুতর কিছু নয়। কিন্তু ধোনিকে নিয়ে কোনও রকম ঝুঁকি নিতে চায়নি সিএসকে। যে কারণে তাঁকে এই ম্যাচে বিশ্রাম দেওয়া হয়। ম্যাচের পরে রায়না বলেন, ‘‘ধোনি এখন সুস্থ আছে। হয়তো পরের ম্যাচেই খেলতে পারবে।’’ 

ধোনি ছাড়া হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে নেমে হারতে হয়েছে চেন্নাইকে। যে হার নিয়ে রায়না বলেন, ‘‘আমাদের আরও বেশি সিঙ্গলস নেওয়া উচিত ছিল। সেটা হয়নি বলে ৩০ রান মতো কম হয়ে যায়।’’ তবে স্পিনার ইমরান তাহিরের প্রশংসা করে রায়না বলেন, ‘‘যখনই উইকেট দরকার, তাহিরকে বল দিয়েছি। ও আমাদের হতাশ করেনি।’’