আইপিএলে দিল্লি ক্যাপিটালসের কোচ রিকি পন্টিং বিস্মিত ঋষভ পন্থ বিশ্বকাপের ভারতীয় দল থেকে বাদ পড়ায়। পন্টিং বলেছেন, বিরাট কোহালিদের দলে এক্স-ফ্যাক্টর হয়ে ওঠার ক্ষমতা ছিল পন্থের। দল ঘোষণার রাতেই তাঁর দলের তরুণ উইকেটকিপারের সঙ্গে দেখা করেছিলেন অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক। 

পন্টিং বলছেন, ‘‘ওর নাম না দেখে আমি খুবই অবাক হয়েছি। আমার খুব জোরালো ভাবেই মনে হয়েছিল, ঋষভ বিশ্বকাপের দলে থাকবে। এমনকি, ও প্রথম একাদশে থাকবে বলেও বিশ্বাস ছিল।’’ যোগ করছেন, ‘‘চার বা পাঁচ নম্বরে ব্যাট করলে অন্য দলের সঙ্গে ভারতের তফাত গড়ে দেওয়ার মতো ক্ষমতা ছিল ওর।’’ জানাচ্ছেন, এই পরিস্থিতিতে ঋষভকে তিনি শুধু উৎসাহ দিয়ে যাচ্ছেন। মনে করছেন, দিল্লির তরুণ লম্বা রেসের ঘোড়া। ‘‘ভারতীয় ক্রিকেটে এখন প্রচুর গভীরতা। ঋষভ হয়তো এ বার সুযোগ পেল না। কিন্তু আমি খুবই অবাক হব যদি দেখি, ক্রিকেট ছাড়ার আগে অন্তত তিনটি বিশ্বকাপ ও খেলেনি।’’ 

ঋষভের সঙ্গে দেখা করে তাঁর কী মনে হল? ভেঙে পড়েছেন? পন্টিং বলছেন, ‘‘কোনও সন্দেহ নেই, ও হতাশ। তবে নিজেকে দারুণ সামলেও নিয়েছে। আমি কথা বলেছি ওর সঙ্গে। অবশ্যই বিশ্বকাপের দলে থাকার স্বপ্ন দেখেছিল ও। কিন্তু ওকে মনে রাখতে হবে, অন্তত তিন থেকে চারটি বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ ও পাবে।’’ যোগ করছেন, ‘‘আমি খুশি যে, যা হওয়ার হয়ে গিয়েছে। এখন দিল্লির হয়ে আইপিএলে পুরোপুরি মনঃসংযোগ করতে পারবে ও।’’ 

ঋষভের বিরুদ্ধে উইকেট ছুড়ে দিয়ে আসার অভিযোগ উঠেছে। কয়েকটি ক্ষেত্রে ম্যাচ শেষ করে আসার মতো পরিস্থিতি পেয়েও তা তিনি হাতছাড়া করেছেন। তারই কি মূল্য চোকাতে হল তাঁকে? সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের উত্তরে পন্টিং বলেছেন, ‘‘আমি জানি না। ওকে বাদ দেওয়ার কারণ জানা নেই আমার। ওকে বাদ দিয়ে কেন অন্য কাউকে নেওয়া হয়েছে, তা-ও জানি না। এটা তো আমার দেখার কথাও নয়। তবে আমার মনে হয় না, ঋষভের মধ্যে ধৈর্যের অভাব রয়েছে। ওদের (ভারতীয় নির্বাচকদের) নিশ্চয়ই কোনও কারণে ওকে না নেওয়ার কথা মনে হয়েছে। আমি তা নিয়ে মন্তব্য করতে পারব না।’’ পন্টিংয়ের আরও মনে হচ্ছে, বিশ্বকাপের দল থেকে বাদ পড়ায় অন্য ঋষভকে দেখা যাবে এ বার। ‘‘ওর জেদ আরও বেড়ে যাবে। আইপিএলে প্রচুর রান করতে চলেছে ও।’’ আজ, বৃহস্পতিবার, ফিরোজ শাহ কোটলায় রোহিত শর্মার মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের মুখোমুখি দিল্লি ক্যাপিটালস। কোটলার পিচে বল মন্থর এবং নীচু হতে পারে। পন্টিং জানাচ্ছেন, এই ধরনের বাইশ গজের সঙ্গে দিল্লি মানিয়ে নিয়েছে। বরং প্রতিপক্ষ মুম্বই বেশি সমস্যায় পড়তে চলেছে এই ম্যাচে। আইপিএলের শুরুতে পিচ নিয়ে সমালোচনা করেছিলেন পন্টিং। বলেছিলেন, ঘরের মাঠের পিচ থেকে কোনও সুবিধেই পাচ্ছেন না তাঁরা। এখন বলছেন, ‘‘আমরা পিচের চরিত্র বুঝে গিয়েছি। বল সামান্য ঘুরতে পারে। আমার মনে হয়, মুম্বইয়ের পক্ষেই এখানে এসে এই উইকেটের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়া কঠিন হবে।’’