টানা ছয় ম্যাচ হারের পরে, শনিবার মোহালিতে জয়ে ফিরল বিরাট কোহালির দল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। আট উইকেটে তারা হারাল প্রীতি জিন্টার দল কিংস ইলেভেন পঞ্জাবকে।

টসে জিতে আরসিবি অধিনায়ক ব্যাট করতে পাঠিয়েছিলেন কিংস ইলেভেন পঞ্জাবকে। নির্ধারিত ২০ ওভারে পঞ্জাবের ইনিংস শেষ হয় ১৭৩-৪। জবাবে চার বল বাকি থাকতেই জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় রান তুলে নেয় আরসিবি। বেঙ্গালুরুর দলটির হয়ে এ দিন প্রথম জয় আনলেন দুই তারকা বিরাট কোহালি ও এ বি ডিভিলিয়ার্স । ৫৩ বলে ৬৭ রান করার মাঝে বিরাট মারেন আটটি চার। অন্য দিকে, ৩৮ বলে ৫৯ রানে অপরাজিত ডিভিলিয়ার্সও সমান মারমুখী ছিলেন। তিনি মারেন পাঁচটি চার ও দু’টি ছক্কা। ম্যাচের সেরাও তিনি। ম্যাচ জিতে বিরাট সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে আনন্দে বলে ফেলেন, ‘‘এতদিনে স্বস্তিদায়ক সাক্ষাৎকারটি দিতে পারছি। এর আগে বহু ম্যাচ জয়ের কাছাকাছি গিয়েও হেরেছি আমরা। এই উইকেটে ১৯০ রান উঠতেই পারে। সেখানে ১৭০ রানের মধ্যে ওদের আটকে রাখাটা বোলারদের কৃতিত্ব। মাঝখানের আট ওভারে চার উইকেট তুলে নিয়ে ভাল কাজ করেছে বোলাররা।’’

ম্যাচের সেরা এ বি ডিভিলিয়ার্সও বলে গেলেন, ‘‘দীর্ঘ সময় ধরে এই জয়ের জন্যই প্রতীক্ষায় ছিলাম আমরা। সেটা সফল হল।’’

শেষ ওভারে জয়ের জন্য দরকার ছিল ৬ রান। সেখানে কিংস ইলেভেন পঞ্জাব অধিনায়ক আর অশ্বিন বল করতে ডেকেছিলেন সরফরাজ খানকে। কিন্তু তাঁর প্রথম দুই বলেই জয়ের রান তুলে নেন ডিভিলিয়ার্স। কেন শেষ ওভারে সরফরাজ? ম্যাচের শেষে প্রশ্ন করা হলে অশ্বিন বললেন, ‘‘ভেবেছিলাম, সরফরাজের লেগস্পিন ডিভিলিয়ার্স বা মাকার্স স্টোয়নিস (১৬ বলে ২৮ রান)-কে আটকে রাখবে। কিন্তু পরিকল্পনা সফল হয়নি।’