নিলামে তাঁর বেস প্রাইস ছিল ২০ লক্ষ টাকা। নিলামের পরে ক্রিকেট বিশ্বকে চমকে দিয়েছিলেন বরুণ চক্রবর্তী। ৮ কোটি ৪০ লক্ষ টাকা দিয়ে কিংস ইলেভেন পঞ্জাব কিনে নেয় তাঁকে।

এ বারের আইপিএল ‘রহস্য স্পিনার’ বরুণ চক্রবর্তীর কাছে দুঃস্বপ্নের মতোই। কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিরুদ্ধে মাত্র একটি ম্যাচ তিনি খেলেছেন। কেকেআর-এর বিরুদ্ধে বরুণ তিন ওভার হাত ঘুরিয়ে মাত্র একটি উইকেট নিয়েছিলেন। দিয়েছিলেন ৩৫ রান। ‘মিস্ট্রি স্পিনার’ নিলেন মাত্র একটি উইকেট! অথচ নিলামে ঢক্কানিনাদ করে নেওয়া হয়েছিল তাঁকে। চেন্নাইয়ের মাটিতে চেন্নাই সুপার কিংসের মুখোমুখি হওয়ার আগে কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, বরুণের আঙুলে চিড় ধরেছে। আর এই চোটের জন্যই বরুণ চক্রবর্তী এখন মাঠের বাইরে।

টিম ম্যানেজমেন্ট বরুণকে নিয়ে এখনও আশাবাদী। কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের সিইও সতীশ মেনন বলেন, “বরুণ চোট পেয়ে গেল, এটা সত্যিই দুর্ভাগ্যজনক। ক্রিকেটে চোট আঘাত হতেই পারে। তবে আমরা আশা করছি ও দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবে।” কিন্তু কবে নামবেন বরুণ তা এখনও পরিষ্কার নয়।

আরও পড়ুন: রায়ুডুর বাদ পড়া কি ভুল সিদ্ধান্ত? পরিসংখ্যান কিন্তু অন্য কথা বলছে

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের দলে নেই রায়ুডু, ভারতের দল নির্বাচন নিয়ে প্রশ্ন আইসিসি-র

আরও পড়ুন: একঝলকে আইপিএল ২০১৯

চেন্নাই লিগে চতুর্থ ডিভিশন লিগে জুবিলি ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে দুর্ধর্ষ পারফরম্যান্স করেছেন তিনি। ওয়ান ডে টুর্নামেন্টে ৮.২৬ গড়ে ৩১টি উইকেট নিয়েছেন। তামিলনাড়ু ক্রিকেট লিগেও নজর কাড়েন ২৮ বছরের তারকা ক্রিকেটার। সিচেম মাদুরাই প্যান্থার্সকে চ্যাম্পিয়ন করেন বরুণ। ৪০ ওভার হাত ঘোরান তিনি। এর মধ্যে ডট বল করেন ১২৫টি। ইকনমি রেট ৪.৭। টুর্নামেন্টে ন্যূনতম ১৫ ওভার যাঁরা বল করেছেন, তাঁদের মধ্যে সেরা ছিলেন বরুণ। এই পারফরম্যান্সের জন্যই নিলামে আকাশছোঁয়া দাম ওঠে তাঁর। কিন্তু, নিলাম আর খেলার মাঠ তো এক নয়! নিলামে অমূল্য ক্রিকেটার মাঠে নেমে ব্যর্থ হয়েছেন, এমন দৃষ্টান্ত রয়েছে অনেক। এই তালিকায় সবচেয়ে বড় নাম জয়দেব উনাদকট। রয়েছেন পবন নেগী, টাইমাল মাইলসরা। বরুণ চক্রবর্তীও সেই তালিকাতেই বোধহয় নাম লেখালেন। অনেক আশা জাগিয়ে এ বার তাঁকে নিয়েছিল কিংস ইলেভেন। দিনের শেষে পর্বত মুষিক প্রসব করল।