ম্যাচ ফি-র ১৫ শতাংশ কাটা গেল ইংল্যান্ডের পেসার জেমস অ্যান্ডারসনের। আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন তিনি। ভেঙেছিলেন আচরণবিধি। সেজন্যই জরিমানা হল তাঁর।

শনিবার ভারতীয় ইনিংসের ২৯তম ওভারে এই ঘটনা ঘটে। ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহালির বিরুদ্ধে লেগ বিফোর উইকেটের আবেদন করেছিলেন অ্যান্ডারসন। যা নাকচ করেন আম্পায়ার কুমার ধর্মসেনা। ইংল্যান্ড রিভিউ করায়। কিন্তু, তাতে লাভ হয়নি। কোহালিকে তৃতীয় আম্পায়ার ব্রুস অক্সেনফোর্ডও আউট দেননি।

এর পরই অ্যান্ডারসন আম্পায়ার ধর্মসেনার থেকে প্রায় ছিনিয়ে নেন জাম্পার। তর্কও করেন তাঁর সঙ্গে। এর পরিপ্রেক্ষিতেই তাঁর জরিমানা। 

আরও পড়ুন: ১৮০০০ রানে দ্রুততম কোহালি, টপকে গেলেন লারাকে

আরও পড়ুন: বিদায়ী টেস্টে টিউবে চড়ে মাঠে এলেন কুক​

আরও পড়ুন: এশিয়া কাপে বাকি সব দল এক হোটেলে, রোহিতরা অন্য হোটেলে

তাঁকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের আচরণবিধির লেভেল ওয়ান অপরাধে অভিযুক্ত করা হয়। অ্যান্ডারসন নিজের অপরাধের কথা মেনেও নেন। জরিমানা ছাড়াও একটি ডিমেরিট পয়েন্ট বসল তাঁর নামের পাশে।

লেভেল ওয়ান অপরাধে সবচেয়ে বেশি শাস্তি হল ম্যাচ ফি-র অর্ধেকই কেটে নেওয়া। অ্যান্ডারসনের অপরাধ ততটা বিবেচিত হয়নি। ফলে, মাত্র ১৫ শতাংশ কাটা হয়। ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বের প্রথম চালু হয় আইসিসি-র এই নতুন আচরণবিধি। এতদিন অ্যান্ডারসন আচরণজনিত কারণে শাস্তি পাননি। এ বারই প্রথম পেলেন।

(ক্রিকেটের খবর,ফুটবলের খবর, টেনিসের খবর, হকির খবর - খেলার খবরের সেরা ঠিকানা আমাদের খেলা বিভাগ।)