আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারদের জন্য আইসিসি ও ক্রিকেটারদের আন্তর্জাতিক সংস্থার (ফিকা) কাছে বাস্তবসম্মত ও ন্যুনতম পারিশ্রমিক নিশ্চিত করার আবেদন জানালেন জেসন হোল্ডার। যাতে ডুয়ান অলিভিয়েরের মতো ভবিষ্যতে আর কোনও ক্রিকেটারকে অকালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট জীবন শেষ করতে না হয়। 

ওয়েস্ট ইন্ডিজের অধিনায়ক হোল্ডার সম্প্রতি ক্রিকেটারদের আন্তর্জাতিক সংস্থা ফিকার সঙ্গে এই ব্যাপারে আলোচনায় বসেন। তাতে তিনি জানিয়েছেন, ক্রিকেটাররা যদি অলিভিয়েরের রাস্তায় হেঁটে অর্থ ও ক্রিকেট জীবনের মেয়াদ বৃদ্ধির উদ্দেশে দেশের প্রতিনিধিত্ব করার চেয়ে ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলা বেশি পছন্দ করেন, তা হলে ভবিষ্যতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের মান বজায় রাখা বেশ কঠিন হবে। মাত্র ২৬ বছর বয়সি পেসার অলিভিয়ের সম্প্রতি ইয়র্কশায়ারের সঙ্গে কোলপ্যাক চুক্তি করেন। যার অর্থ তিনি ইয়র্কশায়ার কাউন্টিতে বিদেশি ক্রিকেটার হিসেবে গণ্য হবেন না। তাঁর আগে মর্নি মর্কেল, কাইল অ্যাবট ও রিলি রুসো-ও একই রাস্তায় হাঁটেন। যার জেরে তাঁদের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট জীবন শেষ হয়ে গিয়েছে। ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত দেশগুলিতে খেলার জন্য আফ্রিকা (কিউবা ছাড়া) ও ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জের দেশগুলির খেলোয়াড়রা এই চুক্তিতে আবদ্ধ হতে পারেন। কিন্তু এর ফলে যে যার দেশের হয়ে খেলার অধিকার হারান। দেশের হয়ে নিয়মিত সুযোগ না পেয়ে বা উপযুক্ত পারিশ্রমিক না পেয়ে অনেকেই ক্রমশ এই কোলপ্যাক চুক্তির পথে পা বাড়াচ্ছেন।