• অশোক মলহোত্র
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কেকেআর-কে নেতৃত্ব দেওয়ার লোক কোথায়

KKR

শনিবার আইপিএল নিলামে কলকাতা নাইট রাইডার্সের ক্রিকেটার বাছা দেখতে দেখতে মনে হচ্ছিল, সত্যিই কি ওরা কোনও গেমপ্ল্যান নিয়ে নিলামে নেমেছে, না কি কয়েকটা বড় নামের পিছনে টাকা খরচ করাই ছিল মূল লক্ষ্য?

আমার প্রথম প্রশ্ন হল, গৌতম গম্ভীরকে কেন ছেড়ে দেওয়া হল? কেকেআর-কে দু’টো আইপিএল ট্রফি দিয়েছে গম্ভীর। ও সামনে থেকে দলকে নেতৃত্ব দিতে পারে। কেকেআরের সেট আপের অংশ হয়ে উঠেছিল। আর গম্ভীরকে যদি ছেড়েই দেওয়া হয়, তা হলে কাকে নতুন অধিনায়ক করার পরিকল্পনা করেছে কলকাতা? আমি অন্তত প্রথম দিনের নিলামের পরে টিমে এমন কাউকে দেখতে পাচ্ছি না, যে এই টিমটাকে নেতৃত্ব দিতে পারে।

ভারতীয়দের মধ্যে দেখলাম কেকেআর দলে নিয়েছে দীনেশ কার্তিক, রবিন উথাপ্পা, পীযূষ চাওলা, কুলদীপ যাদব, নীতীশ রানা-দের। এদের মধ্যে কেউ কি কলকাতাকে আইপিএলে নেতৃত্ব দেওয়ার ক্ষমতা রাখে? আমার অন্তত মনে হয় না। বিদেশিদের মধ্যে কেকেআর রেখেছে সুনীল নারাইন, আন্দ্রে রাসেল, ক্রিস লিন-কে। নিয়ে এসেছে মিচেল স্টার্ক-কে। এদের মধ্যেও আমি কোনও অধিনায়ক দেখতে পাচ্ছি না।

কেকেআর বেশ কয়েক জনের পিছনে এ দিন অনেক খরচ করেছে। যেমন লিন, স্টার্ক, কার্তিক, উথাপ্পা। আমার প্রশ্ন হল, স্টার্কের পিছনে কি ন’কোটি টাকার ওপর খরচ করা ঠিক হল? ও তো চার ওভারের বেশি বল করতে পারবে না। হ্যাঁ, বেন স্টোকসের জন্য আপনি বিশাল অর্থ খরচ করুন, একটা মানে আছে। স্টোকস অলরাউন্ডার। বলে না পারলে ব্যাটে পুষিয়ে দেওয়ার ক্ষমতা রাখে। তার ওপর ফিল্ডিং। কিন্তু স্টার্ক তো চার ওভার বল করা ছাড়া আর কিছু বিশেষ করতে পারবে না। আর স্টার্ক কি মার খায় না? তা হলে?

তা ছাড়া আমার আরও একটা প্রশ্ন আছে। লিন এবং স্টার্ক— এরা কিন্তু বেশ চোট প্রবণ ক্রিকেটার। লিন তো চোট-আঘাতে ভুগেই চলছে। স্টার্কও মাঝে মধ্যেই চোট পেয়ে যায়। তাই এই দু’জনের পিছনে এ রকম বিশাল অর্থ খরচ করাটা কিন্তু একটা বড় ঝুঁকির ব্যাপার। সেই ঝুঁকিটা কেকেআর নিয়েছে। এর ফলটা কী হবে, সেটা সময়ই বলবে।

আজ, রবিবার, নিলামের শেষ দিন। যতদূর জানি, কেকেআরের হাতে সাড়ে সাত কোটি মতো পড়ে আছে। আপাতত ১২ জনের দল হয়েছে। তাই আরও অন্তত ছ’জন ক্রিকেটার ওদের নিতেই হবে। এই অবস্থায় কার কার পিছনে টাকা খরচ করা যেতে পারে?

অবিক্রীত ক্রিকেটারদের তালিকা দেখার পর আমি একটা কথাই বলতে চাই। আমি যদি কেকেআর ম্যানেজমেন্টে থাকতাম, তা হলে অবশ্যই হাসিম আমলার জন্য ঝাঁপাতাম। বা ওকে না পেলে জো রুটের জন্য। এরা এলে ব্যাটিংটা শক্তিশালী হতো। পাশাপাশি টিমকে নেতৃত্ব দেওয়ার লোকও পাওয়া যেত। আমার মনে হয় না, ক্রিস গেল-এর জন্য গিয়ে কোনও লাভ হবে বলে। একে গেল-এর ধারাবাহিকতা ভীষণ কম। তার ওপর গেল মোটেই ফিট ক্রিকেটার নয়।

আমার ভেবে খারাপ লাগছে যে, কেকেআর ওদের পুরো সেট ব্যাটিং লাইনটাই মোটামুটি ভেঙে দিল। গম্ভীর, মণীশ পাণ্ডে, ইউসুফ পাঠান, সূর্যকুমার যাদব, শাকিব আল হাসান— কেউ টিমটায় নেই। এদের জায়গা কার্তিক বা রানা এসে কত দূর কী করবে, সন্দেহ থাকছেই। 

কেকেআরের বোলিং নিয়েও আমার কিছু বলার আছে। ওরা পেস বোলিংয়ে নতুন মুখের উপরে জোর দিয়েছে। কিন্তু আমার মনে হয়, উমেশ যাদবকে রেখে দিলে ভাল করত।  উমেশ তো আগের আইপিএলে যথেষ্ট ভাল বল করেছে। তার ওপর অলরাউন্ডার হিসেবে ক্রিস ওক্‌সকেও রাখতে পারল না।

সব মিলিয়ে আইপিএল নিলামের প্রথম দিনটা কেকেআরের ছিল না।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন