• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কোহালির গভীরতা মুগ্ধ করে এবিকেও

Virat Kohli
বিরাট কোহালি

বিরাট কোহালি শুধু ক্রিকেটের গণ্ডিতেই আটকে নেই, তাঁর গভীরতা আরও অনেক বেশি। এ কথা বলছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যান এ বি ডিভিলিয়ার্স। যিনি আইপিএলে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরে কোহালির অন্যতম সতীর্থ।  

ক্রিকেট জগতে আপনার ভাল বন্ধু কারা? জ়িম্বাবোয়ের প্রাক্তন পেসার পমি বাঙ্গোয়া জানতে চেয়েছিলেন ডিভিলিয়ার্সের কাছে। জবাবে ডিভিলিয়ার্স বলেন, ‘‘অবশ্যই বিরাট এক জন। আর বিরাটের সঙ্গে শুধু আইপিএলের সময়ই যে কথাবার্তা হয়, এমন নয়। সারা বছর ধরে আমরা কথা বলি। আর সেটা শুধু ক্রিকেট নিয়েই নয়।’’

ডিভিলিয়ার্স পরিষ্কার জানিয়েছেন, বিরাটের গভীরতা শুধু ক্রিকেটেই আটকে নেই। এ বি-র কথায়, ‘‘অনেকেই পরের দিকে বুঝতে পারে যে জীবনে ক্রিকেটের বাইরেও অনেক কিছু আছে। বিরাট এটা জানে। ও ক্রিকেটের বাইরেও জীবন নিয়ে অনেক ভাবে। নতুন, নতুন জিনিস পরীক্ষা করতে ভয় পায় না। সেটা জিমেই হোক কী খাবার নিয়ে। আমরা অনেক কিছু নিয়ে কথা বলি। ধর্ম নিয়ে, জীবন নিয়ে।’’

আরও পড়ুন: আক্রমকে খুনের হুমকি দিয়েছিলেন ভিভ রিচার্ডস!

শুধু বিরাটের সঙ্গেই নয়, তাঁর স্ত্রী অনুষ্কা শর্মার সঙ্গে কথা বলেও মুগ্ধ ডিভিলিয়ার্স। তিনি বলেছেন, ‘‘অনুষ্কার সঙ্গেও আমার অনেক কিছু নিয়ে কথা হয়। জীবন নিয়ে, পরিবার নিয়ে। এই তো আমরা সবাই প্রথম শিশু কোহালির আসার অপেক্ষায় আছি। আমরা খুব ভাল বন্ধু। ক্রিকেট নিয়েও কথা বলি। তবে নব্বই শতাংশ সময় আমরা অন্য বিষয় নিয়ে আলোচনা করি।’’

কোহালি এবং অনুষ্কা এখন বাকিদের মতোই লকডাউনে আটকে। তার মধ্যে আবার একটি টিভি চ্যানেলের অনুষ্ঠানে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের খুদে ভক্তদের প্রশ্নের জবাব দেন কোহালি। যে ভিডিয়ো কনফারেন্সে অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড, সিঙ্গাপুরের বাচ্চাদের সঙ্গে হাজির ছিল মুম্বই, চেন্নাইয়ের খুদেরাও। 

এক খুদে ভক্ত প্রশ্ন করে, এই লকডাউনে আপনি সব চেয়ে বেশি ঘৃণা কোন জিনিসটাকে করছেন? কোহালি বলেন, ‘‘ঘৃণা বলব না, তবে ছোট, ছোট ব্যাপারে নিজেকে উদ্দীপিত করাটা একটা চ্যালেঞ্জ হয়ে যাচ্ছে। কিন্তু আমার মনে হয়, অনেক কিছু শেখার সুযোগও পাওয়া গিয়েছে। নিজেকে বদলানোর সুযোগ পাওয়া গিয়েছে। পরিস্থিতিকে ঘৃণা করা একেবারেই উচিত নয়। আমাদের ইতিবাচক থাকতে হবে। একমাত্র যেটা আমার খারাপ লেগেছে, সেটা হল, যখন দেখছি কেউ, কেউ নিয়মভঙ্গ করছে।’’

লকডাউনের জন্য এত দিন ট্রেনিং এবং ক্রিকেট থেকে দূরে আছেন, সমস্যা হচ্ছে না? কোহালির জবাব, ‘‘ভাগ্য ভাল, জিমের সব সরঞ্জাম আমার বাড়িতেই আছে। তাই ফিটনেস ট্রেনিং করতে সমস্যা হচ্ছে না। আর আমি এমন এক জন ক্রিকেটার, যে ব্যাট-বল নিয়ে প্র্যাক্টিসের চেয়ে মানসিক শক্তিকে গুরুত্ব দিয়ে এসেছি। লকডাউনেও আমি খুব ইতিবাচক আছি। তাই মাঠে ফিরতে সমস্যা হবে না।’’

আরও পড়ুন: অস্ট্রেলিয়া কী ভাবে এক নম্বর? র‌্যাঙ্কিং সিস্টেমকে তীব্র কটাক্ষ গৌতম গম্ভীরের

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন