• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আইএসএল থেকে ছিটকে গেলেন লিংডো

Eugeneson Lyngdoh
আঘাত: মরসুমের মাঝপথেই চোট পেলেন লিংডো। ফাইল চিত্র

রবি কিনের গোলে শনিবার জেতার পর এটিকে-তে যখন বড়দিনের আবহ, তখনই এল দুঃসংবাদ! পুরো মরসুমের জন্য টিমের বাইরে চলে গেলেন সবথেকে নির্ভরযোগ্য মিডিও ইউজেনসেন লিংডো। তাঁর সাহায্য বা বদলি কোনওটাই অবশ্য আর পাবে না কলকাতা। এটা বড় ধাক্কা এটিকে-র।

টেডি শেরিংহ্যামের টিমের সব থেকে দামি স্বদেশী ফুটবলার ছিলেন লিংডো। এক কোটি দু’লাখ টাকায় তাঁকে নিলাম থেকে কিনেছিল এটিকে। দুবাইতে প্রস্তুতি শিবিরে তাঁকে দেখার পর কোচ টেডি তো উচ্ছ্বসিত ছিলেনই—রবি কিনও জানিয়েছিলেন, লিংডোর যা প্রতিভা ইউরোপে খেলতে পারে। 

কিন্তু জামশেদপুরে ইন্ডিয়ান সুপার লিগের ম্যাচ খেলতে গিয়ে হাঁটুতে চোট পেয়েছিলেন দেশের জার্সিতে নিয়মিত খেলা লিংডো। মেহতাব হোসেনের সঙ্গে সংঘর্ষে হাঁটুতে চোট পাওয়ার পর তিনি ভেবেছিলেন, হয়তো ফিরতে পারবেন এক-দু’মাসের মধ্যে। কিন্তু সেটা হল না। মুম্বইতে তাঁর অস্ত্রোপচার করলেন প্রখ্যাত শল্যচিকিৎসক অনন্ত যোশী। এটিকে কর্তাদের ডাক্তাররা জানিয়ে দিয়েছেন, পাঁচ মাসের আগে লিংডো মাঠে নামতে পারবেন না। মুম্বই থেকেই তাই বাড়ি ফিরে গিয়েছেন মেঘালয়ের ফুটবলার। টেডি ইতিমধ্যেই বলে দিয়েছেন, ‘‘লিংডোর চলে যাওয়াটা বড় ক্ষতি আমাদের। ওকে ধরেই টিম করেছিলাম। কার্ল বেকারের পর লিংডো চলে যাওয়ায় মাঝমাঠ আমাকে নতুন করে সংগঠন করতে হবে।’’

  বড়দিনের উৎসবের জন্য এখন এটিকে-তে ছুটি চলছে। শনিবার ম্যাচ খেলে রাতেই কোচ চলে গিয়েছেন দুবাইতে ছুটি কাটাতে। রবি কিন আয়ার্ল্যান্ডে। বাকি বিদেশি এবং স্বদেশী ফুটবলারদের কেউ বেড়াতে, কেউ বাড়ি গিয়েছেন। এটিকের পরের ম্যাচ নতুন বছরের শুরুতে ৩ জানুয়ারি যুবভারতীতে। প্রতিপক্ষ লিগ টেবলের দু’নম্বরে থাকা এফ সি গোয়া। শেরিংহ্যাম ফুটবলারদের জানিয়ে দিয়েছেন, শুক্রবার থেকে অনুশীলনে যোগ দিতে। জানা গিয়েছে রবি কিন আসবেন দু’দিন পরে।

এ দিকে, মোহনবাগানের অন্তত সাত জন ফুটবলার চার্চে গেলেন। সে জন্যই বড়দিনে মোহনবাগান কোচ সঞ্জয় সেন ছুটি দিয়েছিলেন পুরো টিমকে। চার দিন পরেই লুইস নর্টন দে মাতোসের দলের সঙ্গে ম্যাচ আনসুমানা ক্রোমাদের। সেই ম্যাচে অবশ্য সনি নর্দে খেলতে পারবেন না। তাঁর চোট সারেনি। হাঁটতেও কষ্ট হচ্ছে। তবে সনি নয়, কিন্তু সবুজ-মেরুনের সবাই উৎকন্ঠায় রয়েছেন ইউতা কিনোয়াকিকে নিয়ে। আজ মঙ্গলবার জাপানে তাঁর কাঁধে অস্ত্রোপচার হবে। আই লিগের প্রথম ডার্বিতে দারুণ খেলেছিলেন এই জাপানি মিডিও। ইউতা ক্লাবকর্তাদের জানিয়েছেন, অস্ত্রোপচারের পর ১৫ জানুয়ারি শহরে ফিরবেন। কিন্তু ফিরলেও কি তিনি খেলতে পারবেন ২১ জানুয়ারির ফিরতি ডার্বিতে? তা নিয়ে সংশয় আছে কর্তাদের মধ্যেও। কোচ সঞ্জয় সেন বললেন, ‘‘ও তো ক্লাবকে জানিয়ে রেখেছে, কাঁধের অস্ত্রোপচার করিয়ে সুস্থ হয়ে ফিরবে। ফিরে মাঠে নামলে বুঝতে পারব কী অবস্থায় আছে।’’

ইউতা কবে ফিরবেন, তা নিয়ে সংশয়ের মধ্যেই শহরে চলে আসছেন মোহনবাগানের নতুন বিদেশি অ্যাটাকিং মিডিও ক্যামেরন ওয়াটসন। সঞ্জয় বললেন, ‘‘আমি আবার পাপাসের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ায় কথা বলেছি। ও তো বলল, ক্যামেরন অনুশীলনের মধ্যে আছে।’’  

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন