ম্যাঞ্চেস্টার সিটি ৬     •    শাখতার দনেস্ক ০

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসে তাদের সব চেয়ে বড় জয় পেল ম্যাঞ্চেস্টার সিটি। ব্রাজিলীয় তারকা গ্যাব্রিয়েল জেসুসের হ্যাটট্রিকের দৌলতে বুধবার রাতে শাখতার দনেস্ককে তারা হারিয়ে দিল ৬-০ গোলে। 

যদিও গ্রুপ ‘এফ’ থেকে  প্রতিযোগিতার নক-আউট পর্বে যাওয়ার জন্য ম্যান সিটিকে আরও একটা ম্যাচ অপেক্ষা করতে হবে। এখনও পর্যন্ত তারাই এই গ্রুপের শীর্ষে। ৪ ম্যাচে পয়েন্ট ৯। দু’নম্বরে ফ্রান্সের ক্লাব লিয়ঁ। ৪ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট ৬। অনেকটাই পিছিয়ে আছে হফেনহাইম (৩ পয়েন্ট) ও শাখতার (২ পয়েন্ট)। সিটিকে পরের ম্যাচ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে বুধবার হেফনহাইম ০-২ পিছিয়ে থেকেও লিয়ঁর সঙ্গে ২-২ ড্র করায়। যদি ফ্রান্সে গিয়ে আগামী ২৭ নভেম্বর লিয়ঁকে হারিয়ে আসতে পারে সিটি তা হলে তাদের নক-আউটে খেলা নিশ্চিত হয়ে যাবে।

ম্যান সিটির ম্যানেজার পেপ গুয়ার্দিওলা ফের ইউরোপীয় ফুটবলে ঝড় তুলেছেন। তাঁর আমলে অনেক বেশি চিত্তাকর্ষক ফুটবল খেলছে ম্যাঞ্চেস্টার সিটি। বুধবার রাতের ম্যাচেও  ছয় গোল করার পরের গুয়ার্দিওলার গলায় আক্ষেপ, ‘‘এটা ভেবে খারাপ লাগছে যে এখনও আমরা নক-আউটে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারিনি। তবে এই গুণগত মানের ফুটবল খেলতে পারলে আমাদের পরের রাউন্ডে যাওয়া আটকাবে বলে মনে হয় না।’’ তিনি যোগ করছেন, ‘‘এখনও যোগ্যতা অর্জন করিনি বলেই হয়তো ছেলেরা কখনও ঢিলেমি দেবে না। আজ ওদের খেলা দেখে আমি সত্যিই মুগ্ধ। এ ভাবে খেলে যেতে পারলে আশা করি গ্রুপ শীর্ষে থেকেই আমরা পরের রাউন্ডে যেতে পারব।’’

গ্রুপে নিজেদের মাঠে লিয়ঁর কাছে ১-২ না হারলে সিটির কাজটা অনেক সহজ হয়ে যেত। অবশ্য সেই হারের পর থেকে দুরন্ত ফর্মে খেলছেন রাহিম স্টার্লিংরা। বুধবার ইউক্রেনের ক্লাবটির বিরুদ্ধে জেসুসের হ্যাটট্রিকের মধ্যে দু’টি গোল পেনাল্টি থেকে করা। যার মধ্যে একটি পেনাল্টি যথেষ্ট বিতর্কিত। স্টার্লিং নিজের পায়ে জড়িয়ে পড়ে যান শাখতার বক্সে। রেফারি ভুল বুঝে পেনাল্টিও দিয়ে দেন সিটিকে। গোল করেন জেসুস। ম্যাচের পরে দুঃখ প্রকাশ করে গুয়ার্দিওলা স্বয়ং বলেন, ‘‘সত্যি ব্যাপারটা খুব খারাপ হয়েছে। রাহিমেরই উচিত ছিল রেফারিকে গিয়ে ব্যাপারটা বলার।’’ সিটির হয়ে অন্য তিনটি গোল করেন দাভিদ সিলভা, রিয়াদ মাহরেজ় এবং স্টার্লিং। ইউক্রেনে খেলতে গিয়ে এই শাখতারকেই ৩-০ হারিয়ে এসেছিল সিটি। দলের সাফল্য নিয়ে গুয়ার্দিওলা বলছেন, ‘‘লিয়ঁর কাছে প্রথম ম্যাচ হেরে আমরাই পরিস্থিতি জটিল করে ফেলি। তাই এখন বড় জয়ের পরেও আমাদের উদ্বেগে থাকতে হচ্ছে।’’