• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

এতিহাদে আজ কঠিন পরীক্ষা সোলসারের

Pep and Ole
যুযুধান: সম্মানের লড়াইয়ে পেপ ও সোলসার। ফাইল চিত্র

Advertisement

দুই ম্যাঞ্চেস্টারের কেউই এই মরসুমে প্রত্যাশাপূরণ করতে পারছে না। পেপ গুয়ার্দিওলার ম্যাঞ্চেস্টার সিটি খেতাব জিতে হ্যাটট্রিক করার লক্ষ্য থেকে ক্রমশ দূরে সরে যাচ্ছে। ওয়ে গুন্নার সোলসারের ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড তো একসময় প্রায় অবনমন অঞ্চলেই চলে যাচ্ছিল!

শনিবার ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে তবু ‘ম্যাঞ্চেস্টার ডার্বি’ ঘিরে ফুটবল মহলে আগ্রহ যথেষ্ট। এতিহাদ স্টেডিয়ামে দু’দলেরই লক্ষ্য থাকবে নিজেদের অনুপ্রাণিত করার মতো ফুটবল খেলে ম্যাচটা জেতা। লিগ টেবলের ছবি যাই হোক, দুই ম্যাঞ্চেস্টারের কাছে এটা ‘সম্মানের প্রশ্ন’। ম্যান সিটির আর্জেন্টিনীয় মহাতারকা সের্খিয়ো আগুয়েরো তো বলেই দিচ্ছেন, ‘‘লিভারপুল যত বড় ক্লাবই হোক, ইংল্যান্ডে খেলা শুরুর করার পর থেকে আমরা এই ডার্বির দিকেই তাকিয়ে থাকি।’’ সোলসারের কথায়, ‘‘ফুটবলার হিসেবে আমার যাবতীয় পরিচয়ের মূলে এই ক্লাবটা। ভাল করেই জানি, একটা সময় ডার্বি জিতলে ক্লাবে কী ধরনের উৎসব হত। এখন আমি এখানে কোচ। আশা করব ফুটবলাররা এই আবেগটা বুঝবে।’’

ইপিএল টেবলে প্রথম পাঁচে নেই ম্যান ইউ। ১৫ ম্যাচে ২১ পয়েন্টে ষষ্ঠ স্থানে। তবু ইংল্যান্ডের বিখ্যাত ক্লাবে হঠাৎই আত্মবিশ্বাস ফিরে এসেছে, শেষ ম্যাচে জোসে মোরিনহোর টটেনহ্যাম হটস্পারের বিরুদ্ধে জয়ের সৌজন্যে। পল পোগবাহীন ম্যান ইউয়ের জয়ের নায়ক মার্কাস র‌্যাশফোর্ড। স্পার্সের বিরুদ্ধে জোড়া গোল করেছেন ইংল্যান্ডের ফরোয়ার্ড। যে ফুটবলটা খেলেছেন, তা মোরিনহোর কথায়, ‘অবিশ্বাস্য’। ম্যান সিটি নামক ‘বিষাক্ত কাঁটা’র মুখোমুখি হওয়ার আগে সোলসারের মুখেও ১৩ ম্যাচে ১২ গোল করা র‌্যাশফোর্ড। ‘‘ওর দক্ষতা নিয়ে কোনও কথা হবে না। আমার সব চেয়ে ভাল লাগে ওর সাহসটা। বল নিয়ে ইনসাইড, আউটসাইড করার সময় ওর মধ্যে কোনও ভয় আমি দেখি না। আমি চাই ক্লাবের সব ফুটবলারের খেলাতেই এই মানসিকতা। বিশেষ করে ম্যাঞ্চেস্টার সিটির মতো প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে।’’

বুধবার বার্নলিকে ৪-১ হারানোয় ম্যান সিটিও এই মুহূর্তে আত্মবিশ্বাসী। গুয়ার্দিওলা এমনকি লিভারপুলের ভাগ্যে অঘটনের প্রত্যাশায় এখনও খেতাব জয়ের আশা ছাড়ছেন না। পেপের সমস্যা, এক ঝাঁক ফুটবলারের চোট। বিশেষ করে আগুয়েরোর ছিটকে যাওয়াটা। বার্নলির বিরুদ্ধে তাঁর জায়গায় খেলেছেন গ্যাব্রিয়েল জেসুস। পেপ খুশি কারণ কম যাননি এই ব্রাজিলীয় ফরোয়ার্ড। জোড়া গোল করেছেন। তাঁর নেতৃত্বেই তৈরি হয়েছে ম্যান সিটির আক্রমণ। লিগ টেবলে পেপের ক্লাব তিন নম্বরে। লিভারপুল (৪৩ পয়েন্ট), লেস্টার সিটির (৩৫ পয়েন্ট) পরে। মহম্মদ সালাহরা ম্যান সিটির থেকে এখন ১১ পয়েন্ট এগিয়ে। পেপ কিন্তু বলছেন, ‘‘যে যাই বলুন, আমি আশা ছাড়ছি না। আমাদের প্রত্যেকটা ম্যাচ জিততে হবে। ভাবছি শুধু একটা করে ম্যাচ নিয়ে। আপাতত ডার্বি জেতাই একমাত্র লক্ষ্য।’’ 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন