• গৌতম ভট্টাচার্য
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কলকাতার কোর্টে হয়তো কিংবদন্তি মার্টিনা

a
মার্টিনা।—ফাইল চিত্র।

টেনিস সার্কিটে এখন দুই মার্টিনা। ইদানীং ভারতীয় টেনিস মহল একজনকেই চিনছে— তিনি মার্টিনা হিঙ্গিস। লিয়েন্ডার আর সানিয়া দু’জনের সঙ্গে জুড়ি বেঁধেই যিনি ইদানীং পরের পর গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতছেন। ভারতীয় টেনিস মহলের তাঁকে ঘিরে আপ্লুত থাকার পর্যাপ্ত কারণ রয়েছে।
কিন্তু বিশুদ্ধ টেনিস মহলের বাইরে গোটা পৃথিবী মার্টিনা বলতে একজনকেই বোঝে আর জানে। সিঙ্গলস ছেড়েছেন পঁচিশ বছরেরও বেশি। অথচ আজও তাঁর নামের পাশে সবচেয়ে বেশি গুগল হিটস। এই সেরিনা উইলিয়ামসের একচ্ছত্র যুগেও তিনি শ্রেষ্ঠত্বের বিচারে সেরিনার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী।
মার্টিনা নাভ্রাতিলোভা। আর নভেম্বরের শেষ সপ্তাহে তাঁকেই হয়তো টেনিস র‌্যাকেট হাতে দেখবে কলকাতা।
২৫ নভেম্বর একদিনের টেনিস মাস্টার্স ২০১৫-র আয়োজন করছেন জয়দীপ মুখোপাধ্যায় এই শহরে। নেতাজি ইন্ডোরে সেই একদিনের টেনিস মেলায় অংশ নিতে নাভ্রাতিলোভার প্রাথমিক সম্মতি পাওয়া গিয়েছে। অরিজিনাল মার্টিনা এর আগে ভারতে এলেও খেলেননি।
এ বার হঠাৎ রাজি হলেন কী করে? শোনা যাচ্ছে এ ব্যাপারে লি-হেশ জুড়ির গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা।
লিয়েন্ডার-মহেশের তীব্র বনিবনার অভাব এখন ইতিহাস। অধুনা তাঁদের মধ্যে দারুণ সম্পর্ক। মহেশের মস্তিষ্কপ্রসূত এই টুর্নামেন্ট কলকাতায় একার দায়িত্বে করছেন জয়দীপ। সেখানে লিয়েন্ডার সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। নাভ্রাতিলোভার ভিসার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র এখান থেকে চলে গিয়েছে। তিনি এলে জুড়ি বেঁধে লিয়েন্ডারের সঙ্গেই খেলবেন। উল্টো দিকে থাকবেন মহেশ-সানিয়া।
উদ্যোক্তারা প্রাথমিক যে সূচি তৈরি করেছিলেন তাতে নাভ্রাতিলোভার জায়গায় ছিলেন হান্টুকোভা। এখন নাভ্রাতিলোভা এলে হান্টুকোভাকে অবশ্যই আনা হবে না। লিয়েন্ডার-নাভ্রাতিলোভা জুড়ি সার্কিটে এক সময় আলোড়ন সৃষ্টি করেছিল। সানিয়া-মহেশ যেমন মিক্সড ডাবলসে ফরাসি ওপেন জিতেছেন তেমনই লিয়েন্ডার-মার্টিনা জিতেছেন যুক্তরাষ্ট্র ওপেন আর উইম্বলডন। আপাতত আটান্ন চলছে অরিজিনাল মার্টিনার। টেনিস মাস্টার্স হতে হতে নভেম্বর। যখন তাঁর বয়স আরও বাড়বে। তা বলে সার্কিটে তিনি মোটেও বুড়ি হয়ে যাননি। এখনও সুযোগ পেলেই কোর্টে নেমে পড়েন।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিকেল পাঁচটা নাগাদ টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করার পরেই বহু প্রতীক্ষিত এই ডাবলস ম্যাচ শুরুর কথা। এর পরেই সেলিব্রিটি টেনিসের ব্যবস্থা। যেখানে নাভ্রাতিলোভার সঙ্গে কে খেলবেন এখনও পরিষ্কার নয়। মুখ্য উদ্যোক্তা জয়দীপকে মঙ্গলবার সন্ধেয় ধরা হলে তিনি বললেন, ‘‘মার্টিনার নিউজটা পাকা হওয়ার জন্য আরও দু’দিন দাঁড়িয়ে যান।’’ টেনিস মহল অবশ্য দিন গুনতে শুরু করেছে কাপ আর ঠোঁটের মধ্যে যেন কোনও ফাঁক না থাকে! 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন